ভোটের পুলিং স্টেশনে সিসি ক্যামেরা বসানোর আহ্বান: খন্দকার মাহবুব

0
121

Adv. Mahbub 01
ঢাকা: আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রতিটা পুলিং স্টেশনে সিসি ক্যামেরা বসানোর আহ্বান জানিয়েছেন সুপ্রিমকোর্ট বার এসোসিয়েশনের সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন। শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে স্বাধীনতা পরিষদ কেন্দ্রীয় সংসদ আয়োজিত ‘ইলিয়াস আলী নিখোঁজের ৩ বছর পূর্ণ হওয়ার প্রতিবাদে এবং সালাহ উদ্দিন আহমেদসহ নিখোঁজ নেতৃবৃন্দের অবিলম্বে ফেরত দেয়ার দাবিতে’ প্রতিবাদী যুব সমাবেশে তিনি এ আহ্বান জানান।
খন্দকার মাহবুব বলেন, ‘৫ জানুয়ারি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কৃর্তিকলাপ দেশের সকল শ্রেণীর মানুষ জানে, বর্তমান সিটি নির্বাচনে সরকারের সোনার ছেলেরা তার পুনরাবৃত্তি করলে আর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিরব ভূমিকা পালন করলে তা দেশের মানুষকে দেখানোর জন্য প্রতিটা পুলিং স্টেশনে সিসি ক্যামেরা বসাতে হবে।
তিনি আরো বলেন, বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশকে কলঙ্কিত করা হয়েছে। এর সঠিক বিচার না হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ যারা এই ঘটনার সাথে জড়িত তাদেরকে একদিন বাংলার জনগণের কাছে জবাব দিতে হবে।
হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বিএনপির চেয়ারপারসনের এই উপদেষ্টা বলেন বর্তমান জালিম সরকার কত মানুষকে গুম খুন অপহরণ হত্যা করেছে তার জবাব একদিন দিতে হবে। গণতন্ত্রের লেবাস পড়ে এই সরকার সকল প্রকার অগণতান্ত্রিক কাজ করছে বলেও তিনি জানান।
তিনি বলেন, আর অনুনয় বিনয়ের সময় নেই, সময় এসেছে প্রতিরোধ করে তোলার গড়ে তোলার। এখন থেকেই প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। সুযোগ এসেছে জবাব দেওয়ার। লগি বৈঠার ইতিহাস সকলে জানে। বিএনপি লগি বৈঠার আন্দোলনে বিশ্বাস করে না। লাশের উপর নৃত্য করে সরকার পতন করতে চায় না। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারকে পতন করা হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।
তিনি আরও বলেন, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি চলমান সিটি করপোরেশন নির্বাচন ঘটলে তার পরিণাম হবে ভয়াবহ।
নিখোঁজ বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদের স্ত্রী হাসিনা আহমেদ বলেন, আজকে প্রায় ১ মাস ১০দিন হলো আমার স্বামী নিখোঁজ। আমার স্বামীকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেভাবে অক্ষত অবস্থায় তুলে নিয়ে গেছে আমি বার বার বলছি সেভাবেই ফেরত চাই। কিন্তু তারা কোন উদ্যোগই গ্রহণ করছে না।
হাসিনা আহমেদ বলেন, একটি পরিবারের অভিভাবককে যখন তুলে নিয়ে যাওয়া হয় তখন সেই পরিবারের সদস্যরাই শুধু বুঝতে পারে হারানোর বেদনাটা কী। আমার ছেলে মেয়ে প্রতিনিয়ত আমাকে প্রশ্ন করে আম্মু বাবার কোন খোঁজ পেলে, আমি কোন জবাব দিতে পারি না। তারাতো কোন অন্যায় করেনি তাহলে কেন তারা তার বাবাকে হারাবে।
তিনি আরও বলেন, আমি আমার স্বামীকে ফেরত পেতে প্রধানমন্ত্রী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ দেশের সকল শ্রেণীর মানুষের কাছে সহযোগিতা কামনা করি। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমতউল্লাহর সভাপতিত্বে যুব সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আহমেদ আজম খাঁন, ব্যারিস্টার পারভেজ আহমেদ, আবেদ উল্লাহ প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email