ভোট কারচুপির অভিযোগে তদন্ত চায় জাতিসংঘ

0
104

UN
ঢাকা: জাতিসংঘের নিয়মিত প্রেস-ব্রিফিংয়ে গতকাল বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট কারচুপি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন প্রসঙ্গে জাতিসংঘের অবস্থানের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। প্রশ্নকর্তা সাংবাদিকের প্রশ্নে উঠে আসে সাংবাদিকদের মারধর ও মিডিয়াকে বাধা দেয়া প্রসঙ্গও। জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুনের মুখপাত্র ফারহান হক বলেছেন, ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি’র ভোট বর্জনের বিষয়ে অবগত রয়েছেন মহাসচিব। ভোট জালিয়াতির বিষয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে ঘটনা তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। গণতান্ত্রিক পন্থায় বিরোধী দলকে তাদের অসন্তোষ ও উদ্বেগ এবং শান্তিপূর্ণ উপায়ে সব পক্ষকে তাদের মতপ্রকাশের আহ্বান জানান মুখপাত্র। সব রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের প্রতি বর্তমান পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ সমাধান বের করারও আহ্বান জানান বান কি-মুনের মুখপাত্র ফারহান হক। জাতিসংঘের প্রেস-ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশ অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলো:
প্রশ্ন: আপনাকে ধন্যবাদ, ফারহান। জাতিসংঘ অবাধ, নিরপেক্ষ ও বিশ্বাসযোগ্য সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু, গতকাল আমরা নির্বাচনে তেমনটা দেখিনি। ঢাকা ও চট্টগ্রামের সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন স্থানীয় সময় বিকাল ৪টার দিকে শেষ হয়েছে। নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন এবং আগেই ভোটপূর্ণ ভোটকেন্দ্র পাওয়া গেছে। এমনকি সাংবাদিকদেরও মারধর করা হয়েছে এবং নির্বাচনী ফলাফলের বিষয়ে প্রতিবেদন করতে গণমাধ্যমকে বাধা দেয়া হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ও বৃটেন এরই মধ্যে এ ধরনের ভোট জালিয়াতি ও সহিংসতার বিষয়ে হতাশা ব্যক্ত করেছে। এ বিষয়গুলোতে আপনার মন্তব্য কি?
মুখপাত্র: নির্বাচনী কারচুপির অভিযোগের মধ্যে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বর্জনের বিষয়টি সম্পর্কে মহাসচিব (বান কি-মুন) অবগত রয়েছেন। তিনি উপযুক্ত কর্তৃপক্ষকে সব অভিযোগ তদন্ত করতে এবং বিরোধী দলকে তাদের উদ্বেগ প্রকাশে গনতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানসমূহকে ব্যবহারের আহ্বান জানাচ্ছেন। তিনি সব পক্ষকে শান্তিপূর্ণ উপায়ে তাদের রাজনৈতিক মতপার্থক্য প্রকাশের আনুরোধ জানিয়েছেন। বর্তমান পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ সমাধান খুঁজতে সব রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান গুরুত্ব সহকারে পুনর্ব্যক্ত করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব।

Print Friendly, PDF & Email