মন্ত্রীরা উস্কানীমূলক বক্তব্য দিয়ে পরিস্থিতি জটিল করছেন: জামায়াত

0
123

Logo Jamat 01
ঢাকা: জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ডাঃ শফিকুর রহমান বলেছেন, জনগণের ভোটাধিকার হরণকারী ফ্যাসিস্ট সরকার দেশে ভয়াবহ নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। বাংলাদেশের প্রতিটি জনপদ মানুষের রক্তে রঞ্জিত। শহরে, গ্রামে-গঞ্জে সন্তান হারা মা-বাবা এবং পিতৃ হারা শিশু সন্তান ও স্বামী হারা বিধবাদের কান্নায় আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে। মানুষের কান্না ও আর্তনাদ আল্লাহর আরশকে কাঁপিয়ে তুলছে। রোববার এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।
ডা. শফিক আরো বলেন, সরকারের মন্ত্রীরা দায়িত্বশীল বক্তব্যের পরিবর্তে উস্কানীমূলক ও আক্রমণাত্মক ভাষায় বক্তব্য রেখে পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল করে তুলেছেন। মন্ত্রী ও দলীয় নেতারা উৎখাত, নির্মূল ও নিশ্চিহ্ন করার ঘোষণা দিচ্ছেন অব্যাহতভাবে। মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী বলেছেন, ‘গুলি করে মারলে কষ্ট কম হয়’- তার এ বক্তব্য জনগণের সাথে একটি উপহাস ছাড়া আর কিছুই নয়। সরকারের মন্ত্রীরা ধরাকে সরা জ্ঞান করে মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন। আমরা তাদের এ দায়িত্বহীন, উস্কানীমূলক ও আক্রমণাত্মক বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
তিনি অভিযোগ করেন, ১৪ মার্চ সিরাজগঞ্জ পৌরসভায় জামায়াতের কর্মী সাইদুর ও রফিকুল ইসলামকে পুলিশ প্রকাশ্য দিবালোকে শতশত মানুষের সামনে তাদের পায়ে গুলি করে গুরুতরভাবে আহত করেছে। এ অমানবিক ঘটনার নিন্দা জানানোর কোনো ভাষা নেই।
আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সারাদেশে আজ জামায়াতে ইসলামীসহ ২০ দলীয় জোটের প্রায় দুই শতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে জানিয়ে তিনি গ্রেফতার অভিযানের নামে সন্ত্রাসী তাণ্ডব বন্ধ করার আহ্বান জানান। জামায়াতের এ নেতা ভোটাধিকার হরণকারী সরকারের বিরুদ্ধে চলমান শান্তিপূর্ণ গণআন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহবান জানান।

Print Friendly, PDF & Email