মানুষ হত্যা করে ক্ষমতার মসনদ ধরে রাখা যায় না: মহানগর জামায়াত

0
409

ja
সিলেট মহানগর জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেছেন, জনগণের সমর্থন ছাড়া গণগ্রেফতার, জুলুম নিপীড়ন, হামলা-মামলা, গুলি ও ক্রসফায়ার চালিয়ে নিরীহ মানুষ হত্যা করে ক্ষমতার মসনদ ধরে রাখা যায় না। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন নস্যাৎ করতে পেট্রোল বোমা ছুড়ে নিরীহ জনসাধারন হত্যার ধ্বংসাত্মক রাজনীতি ক্ষমতাসিনদের অনিবার্য পতন ডেকে আনছে। বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে গুলি, ক্রসফায়ার ও পেট্রোল বোমা মেরে নিরীহ নাগরিক হত্যার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্থি নিশ্চিত করতে হবে। ইসলাম বিদ্বেষী আওয়ামী অপশক্তির কবল থেকে দেশ ও জাতির মুক্তির জন্য আন্দোলনের পাশাপাশি আল্লাহর কাছে মোনাজাত করতে হবে।
শুক্রবার বাদ জুমআ ২০ দলীয় জোটের কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশ হিসাবে দেশব্যাপী গুলি, ক্রসফায়ার ও সন্ত্রাসীদের ছুড়া পেট্রোল বোমায় নিহতদের রুহের মাগফেরাত কামনায় সিলেট মহানগর জামায়াতের উদ্যোগে নগরীতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিল পুর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত কথা বলেন। দেশব্যাপী নিহতদের রুহের মাগফেরাত, জাতীয় নেতৃবৃন্দসহ সকল রাজবন্দীদের মুক্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন অধ্যক্ষ মাওলানা লুৎফুর রহমান।
মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী নুরুল ইসলাম বাবুল, নগর জামায়াত নেতা জাহেদুর রহমান চৌধুরী, হাফিজ মিফতাহুদ্দীন, ক্বারী আলা উদ্দিন প্রমুখ।
নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশ ও জাতি আজ চরম ক্রান্তিকাল অতিবাহিত করছে। এথেকে মুক্তির জন্য একটি জাতীয় সংলাপ আয়োজন সময়ের অপরিহার্য দাবী। এক্ষেত্রে সরকারকেই কার্যকর উদ্যোগ নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। প্রতিপক্ষকে নির্মুল করতে নিরীহ নাগরিকের উপর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রতি সরকারের কর্তাব্যাক্তিদের নির্দেশ দেশকে আরো সংঘাতের দিকে নিয়ে যাবে। তাই জাতির কল্যানে সকল দলের অংশগ্রহনে একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। অন্যথায় দেশ আরো সংঘাতের দিকে ধাবিত হবে।

Print Friendly, PDF & Email