মানুষ হত্যা করে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় ঠেকানো যায়নি: আসাদুজ্জামান নূর

0
270

Asaduzzaman Nurনীলফামারী: সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, মানুষ হত্যা করে ১৯৭১ সালে পাক হানাদার বাহিনী মুক্তিযুদ্ধের বিজয় ঠেকাতে পারেনি। তাদের দোসররা আজ ক্ষমতায় যাওয়ার অপচেষ্টায় আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা করে সরকারের উন্নয় ঠেকাতে পারবে না। দেশের মানুষ তাদের এ অপচেষ্টা প্রতিহত করবেই।
বৃহস্পতিবার বিকেলে নীলফামারী জেলা সদরে গোরগ্রাম স্কুল এণ্ড কলেজ মাঠে  শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে ৬১ লাখ ১৪ হাজার টাকা ব্যয়ে কলেজের নবনির্মিত একাডেমিক ভবন উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী ২০ দলীয় জোটের সমালোচনা করে বলেন, ঘরে বসে বিবৃতি দিয়ে হরতাল ডেকে, আর হরতালের নামে পেট্রলবোমার আগুনে মানুষ পুড়িয়ে মেরে ক্ষমতায় যাওয়া যায় না। আন্দোলনের নামে আপনারা হরতাল ডেকে ঘরে বসে আছেন, আরাম আয়েশ করছেন এটা আপনাদের কেমন আন্দোলন? আর আপনারা বলেন পুলিশ রাস্তায় দাঁড়াতে দেয়না।
তিনি বলেন, আন্দোলন করতে হলে মাঠে থাকতে হয়, জনসমর্থন অর্জন করতে হয়। জনসমর্থন থাকলে পুলিশ ঠেকাতেও পারবেনা। কিন্তু আপনাদের সে জনসমর্থন নেই।
আওয়ামী লীগের আন্দোলন সংগ্রামের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমরাও আন্দোলন করেছি, আমাদেরও রাস্তায় নামতে দেওয়া হয়নি। এরপরও আমরা রাস্তায় নেমে নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রাম করেছি।
তিনি বলেন, পুলিশ আমাদের মেরেছে কিন্তু আমরা পুলিশকে মারি নাই। জনগণ আমাদের সাথে ছিল তাই আমরা সফল হয়েছি।
গোরগ্রাম স্কুল এণ্ড কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি তরিকুল ইসলাম গোলাপের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তৃতা দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মমতাজুল হক, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আলিমুদ্দীন বসুনিয়া, সাধারণ সম্পাদক আবুজার রহমান, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট অক্ষয় কুমার রায়, জেলা যুবলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট রমেন্দ্র বর্ধণ বাপ্পি, সাধারণ সম্পাদক শাহীদ মাহমুদ,পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুশফিকুর রহমান রিন্টু, সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন মুন, গোড়গ্রাম স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মাহফুজুল হক, গোড়গ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদ আলী খান প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email