মিসরের জনগণের উদ্দেশে কারাগার থেকে ড. মুরসির চিঠি

0
313

indexমিসরের মহান জনতা!
যেই মুহূর্তে দেশ বিপ্লব রক্ষার্থে চরম পরাকাষ্ঠা দেখিয়ে যাচ্ছে এবং তরুণরাও তাদের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটাতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ; ঠিক সেই মুহূর্তে আপনাদের প্রতি হিজরি নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। অবৈধ সামরিক ক্যু ও এর কুশীলবদের বিরুদ্ধে বিপ্লবী প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখায় আমি আনন্দিত। সেজন্য আপনাদেরকে অভিনন্দন জানাই।
আমাদের মহান জাতির বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের নায়কেরা যেসব কুকর্ম করেছে, তার প্রতিফলের কথা চিন্তা করে ভয়ের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে তারা।
আমার পতন হয়েছে-এই ঘোষণা দেয়ার সুযোগ আমি বন্ধ করে দিয়েছি। এছাড়া বিপ্লব ও শহীদদের রক্তের সাথে আপোস করে সব ধরনের সমঝোতার চেষ্টা অব্যাহতভাবে প্রত্যাখ্যান করে আসছি। কারণ, সমঝোতার এসব প্রচেষ্টার লক্ষ্য হচ্ছে জনগণকে তাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে ক্ষমতাসীনদের দাসত্বে আবদ্ধ রাখা। জনগণ এটা কখনোই চায় না।
আমি আবারো নেতৃবৃন্দ, পরিষদ, জোট, বুদ্ধিজীবী ও শিক্ষার্থীসহ সকল বিপ্লবীদের কাছে আমার নির্দেশনা পুনর্ব্যক্ত করছি। সামরিক ক্যু-এর প্রতি কোনো ধরনের স্বীকৃতি দিবেন না। বিপ্লব থেকে পিঁছিয়ে আসা যাবে না। শহীদদের রক্তের সাথে আপস করে কোনো ধরনের সমঝোতা করা উচিত হবে না।
শুভ নববর্ষ। জীবনে আগামী বছরটি আসুক আপনাদের মুক্তাবস্থায়।
আমার ব্যাপারে আমি অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী। আমি মনে করি, আল্লাহ আমাদের বিপ্লবকে অবশ্যই সফল করবেন। আপনাদের ইচ্ছাশক্তি ও বিরাট শক্তির প্রতি আমার আস্থা আছে। আল্লাহর ইচ্ছায় আমার কারারুদ্ধ ছেলেরা জেল থেকে বের হওয়া এবং মেয়েরা ঘরে ফিরে যাওয়ার আগে আমি কারাগার ত্যাগ করব না।
আমার জীবন বিপ্লবের শহীদদের চেয়ে বেশি প্রিয় নয়। বিপ্লবের সব স্কয়ার ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবনী ক্ষমতাসম্পন্ন যুবকদের থেকে আমি ইচ্ছাশক্তি অর্জন করছি। আমি আমার সন্তানতুল্য শহীদদের ভুলব না, যারা ক্যু-এর পর বিশ্বাসঘাতকতার শিকার হয়েছিলেন। ক্ষতের সমুদ্রে পরিণত হয়েছিল দেশ। আমি জানি বিপ্লবের মাধ্যমেই সেই ক্ষত দূর হতে পারে এবং ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হবে।
সুতরাং, সুসংবাদ নিন এবং বিপ্লব সফলে প্রচেষ্টা চালিয়ে যান। নিশ্চয়ই আল্লাহ সত্যকে সমর্থন করবেন এবং আপনাদেরকে নিরাশ করবেন না। আল্লাহ’র ইচ্ছায় শিগরিই আমরা বিপ্লবের বিজয় উদযাপন করতে একত্রিত হব।
মোহাম্মাদ মুরসি
প্রেসিডেন্ট, দ্য আরব রিপাবলিক অব ইজিপ্ট
সূত্র: ডেইলী আমার বাংলা

Print Friendly, PDF & Email