মুজাহিদের প্রাণভিক্ষার আবেদনের খবর অসত্য ও ভিত্তিহীন: জামায়াত

0
143

ঢাকা: বিভিন্ন অনলাইন ও গণমাধ্যমে ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের নিকট আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদ ক্ষমা চেয়েছেন’ মর্মে যে খবর প্রচারিত হচ্ছে তা বিভ্রান্তিকর ও অসত্য দাবি করে এই মুহূর্তে তা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। শনিবার গণমাধ্যামে পাঠানো এক বিবৃতিতে ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন গণমাধ্যমে কারা অধিদপ্তরের বরাত দিয়ে প্রচার করা হচ্ছে যে, ‘জনাব আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদ মাহামান্য রাষ্ট্রপতির নিকট প্রাণভিক্ষার আবেদন করেছেন। প্রচারিত এ খবরটি সম্পূর্ণ অসত্য ও বিভ্রান্তিকর।

তিনি জানান, পরিবারের সাথে সাক্ষাতকালে আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদ রাষ্ট্রপতির নিকট প্রাণভিক্ষার বিষয়ে আইনজীবীদের সাথে পরামর্শের ইচ্ছা ব্যক্ত করেছেন। তিনি পরিবারের নিকট প্রাণভিক্ষার বিষয়ে কোনো বক্তব্য দেননি।

তিনি মুজাহিদের পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনের কথা উল্লেখ করে বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে প্রদত্ত বক্তব্যে জানানো হয়েছে যে, জনাব আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ আইনজীবীদের সাথে পরবর্তী আইনী বিষয়ে পরামর্শ করতে চান।

শফিকুর রহমান জানান, আইনজীবীগণ জনাব মুজাহিদের সাথে সাক্ষাতের অনুমতি চেয়ে কারাকর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করেও এখনো সাক্ষাতের অনুমতি পাননি।

ক্ষমা চাওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি পুনরায় বলেন, বিভিন্ন গণমাধ্যমে ক্ষমা চাওয়ার যে খবর প্রচারিত হচ্ছে তা সঠিক নয়। আমরা কারাকর্তৃপক্ষকে মুজাহিদের সাথে আইনজীবীদেরকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সাক্ষাতের ব্যবস্থা করার অনুরোধ করছি। সেই সাথে সৃষ্ট বিভ্রান্তি নিরসনের জন্য কারাকর্তৃপক্ষের সুস্পষ্ট বক্তব্য প্রদানের আহ্বান জানাচ্ছি।

শফিকুর রহমান বলেন, আইনজীবীদের সাক্ষাৎ এবং কারা কর্তৃপক্ষের অফিসিয়াল বক্তব্য আসার আগে বিভ্রান্তিমূলক ও নোংড়া অপপ্রচার থেকে বিরত থাকার জন্য আমরা সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রসঙ্গত, এর আগে জামায়াতে ইসলামীর দুই শীর্ষ নেতার মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হলেও তারা কেউই রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন করেননি।

Print Friendly, PDF & Email