যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে গণতন্ত্র চায়: বার্নিকাট

0
177

Stifen Barnikan
ঢাকা: মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া স্টিফেন্স ব্লুম বার্নিকাট বলেছেন, তার দেশ বাংলাদেশে অব্যাহত গণতন্ত্র দেখতে চায় এবং গণতন্ত্র রক্ষায় দেশটিকে সহযোগিতার ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে রোববার সন্ধ্যায় তার সংসদ ভবন কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে নবনিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন আপনাদের গণতন্ত্রকে গুরুত্ব দেই। গণতন্ত্র রক্ষায় আমরা আপনাদেরকে সহযোগিতা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা বাংলাদেশে অব্যাহত গণতন্ত্র দেখতে চাই। বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের একথা জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে গণতন্ত্র রক্ষায় তার সরকার যা প্রয়োজন তাই করবে। তিনি বলেন, ‘আমাদের গণতন্ত্র অনেক কষ্টে অর্জিত। এই গণতন্ত্র রক্ষায় যা করণীয় আমরা সবই করবো।’
শেখ হাসিনা বলেন, দেশ ও জনগণের উন্নয়ন ও কল্যাণ নিশ্চিত করার ব্যাপারে তার দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিশেষ দায়িত্ব রয়েছে।
তিনি বলেন, সে কারণেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সংবিধানে কল্যাণমূলক বিভিন্ন বিষয় সংযুক্ত করেছিলেন।
বার্নিকাট বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের মধ্যে গভীর বন্ধুতপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে এবং তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, আগামী দিনে এ সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে।
মার্কিন রাষ্ট্রদূত বিশ্বের বিভিন্ন সংঘাত উপদ্রুত অঞ্চলে বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীদের ভূমিকার ভুয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ‘অনেক দেশই এটা অনুসরণ করতে পারে।’
বার্নিকাট বলেন, বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত আমেরিকানরা খুবই মেধাবী এবং মার্কিন অর্থনীতিতে তারা ব্যাপক অবদান রাখছে।
মার্কিন রাষ্ট্রদূত কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খাদ্য নিরাপত্তা, নারীর ক্ষমতায়নসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সাফল্যের ভুয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, এতে মনে হয়, বাংলাদেশের এসব সাফল্য অর্জনের ক্ষেত্রে কিছু গোপন রহস্য রয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নে সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি। এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান এবং বাংলাদেশে তার দায়িত্ব পালনকালে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email