যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা

0
302

51572_u
ঢাকা: যৌতুকের জন্য স্ত্রী সুবর্ণা আক্তারের শরীরে কেরাসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী ইলিয়াস। ঘটনাটি ঘটেছে নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানার বাহেরচর গ্রামে গতকাল ভোরে। আজ সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে অগ্নিদগ্ধ সুবর্ণা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। জানা যায়, চলতি মাসের ৮ তারিখে রায়পুরা থানার বাহেরচর গ্রামের আনোয়ার হোসেন ও মর্জিনা আক্তারের কন্যা ও নরসিংদী সরকারি কলেজের বানিজ্য বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী সুবর্ণা আক্তারের সঙ্গে নরসিংদী সদরের নাগরিয়াকান্দি এলাকার মো. ইলিয়াসের বিয়ে হয়। সুবর্ণার এইচএসসির টেষ্ট পরীক্ষা চলছিল। কথা ছিল পরীক্ষা শেষেই তাকে নিজ বাড়িতে নিয়ে যাবে ইলিয়াস। সুবর্ণার পিতা আনোয়ার হোসেন জানান, শুক্রবার সুবর্ণা ও ইলিয়াসের মধ্যে মোবাইল ফোনে কথা হয়। ইলিয়াস বিয়েতে ২ লাখ টাকা, ফার্নিচার যৌতুক হিসেবে দাবি করে। কিন্তু সুবর্ণা তাতে রাজি হয়নি। যৌতুকের দাবিতে শুক্রবার শ্বশুর বাড়িতে আসে ইলিয়াস।
শনিবার ভোরে সুবর্ণা ও ইলিয়াসের মধ্যে ঝগড়া হয়। কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে ঘরে থাকা কেরোসিন সুবর্ণার শরীরে ঢেলে দিয়ে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয় ইলিয়াস। সুবর্ণার চিৎকারে প্রতিবেশিরা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। রোববার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুবর্ণা মারা যান। বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন সুবর্ণার শরীরের প্রায় নব্বই শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email