রাজনৈতিক সংকট নেই, খালেদা মিথ্যা বলেছেন: আওয়ামী লীগ

0
235

Hanif
ঢাকা: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া তার বক্তব্যে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করেছেন। তিনি বলেন, “হত্যা ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতির মাধ্যমে যাদের জন্ম তারা সব সময়ে মিথ্যাচার করবে এটাই স্বাভাবিক। এখনো তারা মিথ্যাচার করছে।
শুক্রবার বিকেলে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন হানিফ। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সংবাদ সম্মেলনের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানাতেই এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে আওয়ামী লীগ।
খালেদা জিয়া সহিংস কর্মকান্ডের মাধ্যমে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন ঠেকিয়ে সাধারণ মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিতে চেয়েছিলেন বলে অভিযোগ করে মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেন, সাধারণ মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিতেই ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে দেশ জুড়ে নাশকতা সৃষ্টি করেন বেগম খালেদা। তার নির্দেশেই বিএনপি-জামায়াতসহ ২০ দলের ক্যাডাররা মানুষ হত্যা শুরু করে। এ সময় হামলা চালিয়ে ও অগ্নি সংযোগ করে বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করা হয়।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, জামায়াত নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে না বলেই খালেদা জিয়াও নির্বাচনে আসেননি। কারণ বিএনপি জামায়াত একে অপরের বন্ধু। বন্ধুকে ছাড়া খালেদা কীভাবে নির্বাচনে যাবেন?
বন্ধুর মন রক্ষা করতে নির্বাচনে না গিয়ে এখন সহিংসতা চালিয়ে দেশের মানুষকে হত্যা করছেন বলেও দাবি করেন হানিফ। সহিংসতাকারীদের সঙ্গে কোনো সংলাপ হতে পারে না মন্তব্য করে হানিফ বলেন, দেশে কোনো রাজনৈতিক সংকট নেই। এখন দেশে যা হচ্ছে তা কোনো রাজনৈতিক সংকট নয়। কিছু সহিংস কর্মকান্ড চালানো হচ্ছে। বেগম জিয়া গত ৬৭ দিন যে নাশকতা চালিয়েছেন, এর দায়ভার তিনি কোনোভাবেই এড়াতে পারেন না। এ জন্য খালেদা জিয়া ও তার দলের নেতা-কর্মীদের বিচারের মুখোমুখি হতে হবে বলেও জানান তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email