রোববার থেকে ফের ৭২ ঘণ্টার হরতাল

0
252

Hartal
ঢাকা: বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট রবিবার ভোর ৬টা থেকে বুধবার ভোর ৬টা পর্যন্ত ফের ৭২ ঘণ্টার হরতাল আহ্বান করেছে। গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু এ হরতাল আহ্বান করেন।
বিবৃতিতে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে দেশব্যাপী অবরোধ পালনের পাশাপাশি গুম, খুন, নির্যাতন, অপহরণ, জেল-জুলুম, অন্যায়ভাবে রিমান্ডের প্রতিবাদে এ হরতাল আহ্বান করা হয়। এছাড়া বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমদকে গ্রেফতারের প্রতিবাদ এবং তার মুক্তির দাবিও করা হয়েছে।
বিবৃতিতে বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, দেশে গণতন্ত্র ও জনগণের অধিকার পুন:প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিএনপি চেয়ারপারসন ২০ দলীয় জোট প্রধান খালেদা জিয়া চলামান শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক আন্দোলন অব্যাহত রাখার যে ঘোষণা দিয়েছেন ২০ দলের পক্ষে থেকে তার প্রতি পূর্ণ সমর্থন জ্ঞাপন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, দেশবাসী ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মী ও গণতন্ত্রমনা প্রতিটি ব্যক্তি ও শক্তিকে আন্দোলনের কর্মসূচি নিজ নিজ এলাকায় সফলভাবে বাস্তবায়নের জন্য উদাত্ত আহ্বান জানানো হচ্ছে। খালেদা জিয়া দেশের চলমান সঙ্কট নিরসনের যে দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন তা মেনে নিয়ে অচিরেই দেশের বিরাজমান সমস্যা নিরসণে আলোচনার উদ্যোগ গ্রহণের জন্য আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি।
বরকত উল্লাহ বুলু তার বিবৃতিতে আরও বলেন, গত শুক্রবার আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুবুল আলম হানিফ খালেদা জিয়ার সংবাদ সম্মেলনের দেওয়া বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া যে অশোভন ও রাজনৈতিক শিষ্টাচারবহির্ভূত মন্তব্য দিয়েছেন আমরা তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।
তিনি বলেন, গত ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে গণভবনে আওয়ামী লীগ নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটি ও দলের নেতাদের যৌথ সভায় সভানেত্রীর সূচনা বক্তব্যে শেখ হাসিনা নির্বাচনের পরেও আলোচনা অব্যাহত রাখার এবং সমঝোতা হলে সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে নতুন নির্বাচনের অঙ্গীকার করেছিলেন। সেদিন বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে এবং পরদিন সব জাতীয় দৈনিকে সেই বক্তব্য প্রচারিত ও প্রকাশিত হয়েছে। খালেদা জিয়া তার সংবাদ সম্মেলনে শেখ হাসিনার সেই অঙ্গীকারের কথাই তুলে ধরেছিলেন।
তিনি বলেন, নতুন নির্বাচনের এমনকি সমঝোতার লক্ষ্যে আলোচনায় বসতেও আওয়ামী লীগ অঙ্গীকার করেছে। জনাব হানিফ সেই অঙ্গীকারের কথাই এখন বেমালুম অস্বীকার করছেন। আমরা এর নিন্দা জানিয়ে এ ধরনের বদ অভ্যাস থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।
যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আটকের পর দলের আরেক যুগ্ম-মহাসচিব সালহউদ্দিন আহমেদ দলের মুখপাত্রের দায়িত্ব পালন করছিলেন।
১০ মার্চ রাত থেকে সালাহউদ্দিন আহমেদ ‘নিখোঁজ’ রয়েছেন। এরপর দলের মুখপাত্র হিসেবে শনিবার থেকে গণমাধ্যমে বিবৃতি পাঠানোর দ্বায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বরকত উল্লাহ বুলুকে।

Print Friendly, PDF & Email