রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে ভারতের সহায়তা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

0
165
ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক: রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে ভারতের সহায়তা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পশ্চিমবঙ্গ সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে বলেন, ‘রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। আমরা মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে তাদের স্থান দিয়েছি। আমরা চাই তারা যত দ্রুত সম্ভব নিজ দেশে ফিরে যাক। রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার বিষয়ে মিয়ানমারের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগে সহায়তা করার অনুরোধ করছি।’ এ খবর দিয়েছে এএনআই। এসময় একইমঞ্চে উপস্থিত ছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এর কিছুক্ষণ আগে দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন করেন। দুই প্রধানমন্ত্রী আজ দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে বসবেন বলে আশা করা হচ্ছে। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বক্তব্যে আরো বলেন, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শান্তিনিকেতন শুধু পশ্চিমবাংলার নয়। দুই দেশের। রবীন্দ্রনাথ শুধু ভারতের নয়, বাংলাদেশেরও। নজরুলও দুই দেশের। তিনি আরো বলেন, আমি এখানে আসতে পেরে খুবই আনন্দিত। রবীন্দ্রনাথ আজ আমাদের দুই দেশের মানুষের মনে জড়িয়ে আছেন। বাংলাদশের জাতীয় সংগীত রবীন্দ্রনাথ লিখেছেন। রবীন্দ্রনাথ আমাদের জীবনের সবকিছুর সঙ্গে মিশে আছেন। আমাদের আনন্দ-দুঃখ, ব্যাথা-যন্ত্রণা, সবকিছুর সঙ্গে মিশে আছেন রবীন্দ্রনাথ। রবীন্দ্রনাথ আমাদের অন্তরের কবি। আমি মনে করি, বিশ্বভারতী আমারও বিশ্ববিদ্যালয়। শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদশের মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারতবাসী আমাদের পাশে ছিলেন। ভারতবাসীর সেই অবদান আমরা ভুলব না। আমরা ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশই প্রায় সব সমস্যার সমাধান করে ফেলেছি। আমি বিশ্বাস করি যে, সব সমস্যা আমরা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মাধ্যমে সমাধান করতে পারবো। স্থলসীমানা চুক্তি ভারতের সংসদে পাশ হয়ে গিয়েছে। ছিটমহল চুক্তি শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে। বন্ধু হয়ে ভারত আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। বিশ্বের কাছে এটা একটা উদাহরণ। বাংলাদেশের উন্নয়নে ভারত যথেষ্ট সহযোগিতা করে যাচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email