শাবি’সহ দেশব্যাপী ছাত্রলীগের ধ্বংসাত্মক সন্ত্রাসী তৎপরতা বন্ধ করতে হবে: এডভোকেট জুবায়ের

0
254

Adv Jubayer 01
সিলেট: বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সিলেট মহানগর আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেছেন, আওয়ামী অবৈধ সরকারের প্রত্যক্ষ মদদে তাদের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ দেশব্যাপী শিক্ষাঙ্গনে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। তাদের ধ্বংসাত্মক সন্ত্রাসী তৎপরতা থেকে সিলেটবাসীর ঐতিহ্যের স্মারক শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ও ওসমানী মেডিকেল কলেজসহ দেশের শীর্ষস্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো রক্ষা পাচ্ছেনা। সারাদেশের ন্যায় কতিপয় শিক্ষকের ইন্ধনে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের আভ্যন্তরিন কোন্দলে তাদের এক নেতা নিহত হয়েছে। এমন নৃশংস ঘটনায় সিলেটবাসী হতবাক, অভিভাবকমহল উদ্বিগ্ন। এমন অবস্থা চলতে দেয়া যায়না। অবিলম্বে শাবি সহ দেশব্যাপী শিক্ষাঙ্গনে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির ঘৃন্য ষড়যন্ত্রের সাথে জড়িত সন্ত্রাসী ও তাদের মদদদাতা শিক্ষকদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্থি নিশ্চিত করতে হবে।
তিনি বলেন, সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ও হলগুলো থেকে ইসলামী ছাত্রশিবির সহ বন্ধুপ্রতিম সকল ছাত্রসংগঠনের কার্যক্রম অঘোষিতভাবে নিষিদ্ধ করে। মেধাকে পেছনে ফেলে দলীয় মনোভাবের ভিত্তিতে শুধু ছাত্রলীগকে ক্যাম্পাসে নেতৃত্ব দেয়ার সুযোগ করে দেয় আর হল গুলোকে ছাত্রলীগের অস্ত্র মজুদ রাখার মিনি ক্যান্টনমেন্টে পরিনত করে। সরকারদলীয় শীর্ষ নেতৃবৃন্দের নির্দেশে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীর কতিপয় দলবাজ কর্মকর্তাদের প্রত্যক্ষ মদদে ছাত্রলীগ দেশের সকল শীর্ষস্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার পরিবেশ বিনষ্ট করে। সিলেটের রাজপথ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের অস্ত্রের মহড়া কোন মেধাবী ছাত্রসংগঠনের কাজ হতে পারেনা। তা কেবল সন্ত্রাসী, নৃশংস সংগঠনের দ্বারাই সম্ভব। অবিলম্বে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের জঙ্গি তৎপরতা বন্ধ এবং ক্যাম্পাস-হলগুলোতে মেধার ভিত্তিতে সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে।
তিনি বৃহস্পতিবার সিলেট মহানগর জামায়াতের থানা আমীর সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। মহানগর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী মাওলানা সোহেল আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আইনবিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট জিয়াউদ্দিন নাদের, আইটি বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট আব্দুর রব, অফিস সেক্রেটারী জাহেদুর রহমান চৌধুরী, প্রচার সেক্রেটারী নুরুল ইসলাম বাবুল, জামায়াত নেতা আব্দুস শাকুর, মুফতী আলী হায়দার ও আব্দুল্লাহ আল মুনিম প্রমুখ।
জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেন, আওয়ামী সরকারের আস্কারা পেয়ে তাদের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ শিক্ষার্থীদের জন্য বিষপোড়ায় পরিনত হয়েছে। জাতি এই বিষপোড়া থেকে মুক্তি চায়। কোন শিক্ষাঙ্গনে নিরীহ মেধাবী ছাত্র সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী তৎপরতার বলি হতে পারে না। অবিলম্বে ছাত্রলীগকে দেশের সকল প্রতিষ্ঠানে নিষিদ্ধ করতে হবে। শিক্ষার সুষ্টু পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে ছাত্রলীগের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, তাদের মদদদাতা শিক্ষক ও প্রশাসনের কর্তাব্যাক্তিদের গ্রেফতার করে বিচারের কাঠগড়ায় দাড় করাতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email