শাসকদলের প্রভাববিস্তারে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন নিয়ে শঙ্কায় বিএনপি

0
135

 

ঢাকা: শাসকদলের প্রভাববিস্তারের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের ‘নির্বিকার ভূমিকা’য় পৌর নির্বাচন কতটুকু শান্তিপূর্ণ হবে তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছে বিএনপি। শুক্রবার এক বিবৃতিতে দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল করিব রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী সন্ত্রাসীদের ব্যাপক তাণ্ডব, হত্যাকাণ্ড ও ধানের শীষের মেয়র প্রার্থীদের প্রচারণায় ব্যাপক বাধা দেওয়া সত্ত্বেও নির্বাচন কমিশনের নির্বিকার ভূমিকায় পৌর নির্বাচন কতটুকু অবাধ ও শান্তিপূর্ণ হবে, সেটি নিয়ে আশঙ্কা এখন চরম আকার ধারণ করেছে। তিনি অভিযোগ করেন, সারাদেশে নির্বাচনী এলাকায় প্রশাসনের নাকের ডগায় শাসকদলের ‘ক্যাডারদের’ সন্ত্রাস চলছে।

রিজভী জানান, ফরিদপুরের নগরকান্দা পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী সাইফুর রহমান মুকুলের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট তৈয়বুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সেখানে ‘আওয়ামী সন্ত্রাসীরা’ বিএনপি নেতাকর্মীদের হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। এলাকায় আতঙ্কিত পরিবেশ বিরাজ করছে।

বিএনপির নেতাকর্মীদের বাসায় পুলিশ তল্লাশির নামে তাণ্ডব চালাচ্ছে- অভিযোগ করে তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক সেলিম এবং জেলা ছাত্রদল সদস্য আজিজুর রহমান মিজান, নেত্রকোনা জেলাধীন দুর্গাপুর থানা ছাত্রদল সভাপতি জুলহাস, ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি সাবু মিয়া, যুবদল নেতা মো. আলামিন, চাঁদপুর জেলাধীন মতলব পৌর বিএনপির আহ্বায়ক মোজাম্মেল হক খোকনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষের মেয়র প্রার্থী রুম্মন চৌধুরীর বাসায় শুক্রবার বোমা ও গুলিবর্ষণ হয়েছে। এতে চার/পাঁচ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

এ ছাড়া শরিয়তপুর, চট্টগ্রাম, মিরেরসরাই পৌরসভা, রামগঞ্জ পৌরসভা, উল্লাপাড়া, জামালপুর সদর পৌরসভা, রাজশাহী জেলাধীন নওহাটা পৌর এলাকা, ঝিনাইদহ জেলাধীন শৈলকূপা পৌর এলাকা, বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বিএনপির প্রার্থীদের প্রচারে বাধা এবং বাড়িঘরে হামলা হয়েছে বলেও দাবি করেন রিজভী।

Print Friendly, PDF & Email