শিক্ষার মানোন্নয়নে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: শেখ রফিকুল ইসলাম

0
146

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম বলেছেন, শিক্ষার মানোন্নয়নে আমাদের যার যার অবস্থান থেকে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। তা না হলে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছানো সম্ভব হবে না। তিনি বলেন সুনামগঞ্জবাসী জেগে উঠো, শিক্ষিত হও। শিক্ষা ছাড়া কোন জাতি অগ্রসর হতে পারে না। শিক্ষার উন্নয়নে বর্তমান সরকার সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে। শুধু সুনামগঞ্জ জেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। আমিও সুনামগঞ্জ জেলায় শিক্ষাকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছি। শিক্ষার মানোন্নয়নে প্রথমে সচেতন হতে হবে অভিভাবকদের। তারা প্রতিনিয়ত তাদের সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে হবে। পরে শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটিকে যথাযথ দায়িত্ব পালন করতে হবে। শিক্ষকরা ছাত্রছাত্রীদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করতে হবে। কোমলমতি শিশুদের মনের ভয় দূর করতে হবে। ক্লাসরুমে আনন্দঘন পরিবেশ তৈরী করতে হবে। তা হলেই শিশুরা লেখাপড়ায় মনোযোগি হবে। স্কুলে সব সময় শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখতে হবে। অবশ্যই কোমলমতি শিশুদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। তা হলেই আমরা বিশ্ব দরবারে মাথা উচুঁ করে দাঁড়াতে পারবো। তিনি বলেন, শিক্ষক নিয়োগে কোন অনিয়ম মেনে নেয়া যাবে না। তিনি আরো বলেন, জগন্নাথপুর উপজেলায় ১৫৪ টি প্রাথমিক, ২৮ টি মাধ্যমিক ও মাত্র ৪ টি কলেজ রয়েছে। প্রাথমিকের তুলনায় মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনেক কম। তাই জগন্নাথপুরে আরো মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে তিনি এলাকার প্রবাসী ও ধনাঢ্য ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।

মঙ্গলবার জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটরিয়ামে শিক্ষার মানোন্নয়ন বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ূন কবিরের সভাপতিত্বে ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আকমল হোসেন, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হজরত আলী, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল কাইয়ূম মশাহিদ, পাটলি ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আতাউর রহমান কামালী, উপজেলা মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সৈয়দ রেজওয়ান আহমদ, হলিয়ারপাড়া সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মঈনুল ইসলাম পারভেজ, জগন্নাথপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুন নুর, শাহজালাল মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ আব্দুল মতিন, মিরপুর পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ গভর্নিংবডির সভাপতি হরমুজ আলী, জগন্নাথপুর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অনন্ত কুমার সিংহ, রাণীগঞ্জ উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সামাদ, জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল খালেক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মানস রঞ্জন রায় প্রমূখ। অনুষ্ঠান শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা বদরুল ইসলাম ও গীতাপাঠ করেন শিক্ষক সুদীপ ভট্রাচার্য্য। অনুষ্ঠানে জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাজেরা বারী, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) রফিকুল ইসলাম, কলকলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাজ্জাদুর রহমান, মিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) জমির উদ্দিন, রাণীগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মজলুল হক, সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসান, আশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ূব খান, পাটলি ইউনিয়নের রসুলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি দবির মিয়া, জগন্নাথপুর পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইকবাল হোসেন ভূইয়া, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, জগন্নাথপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহজাহান মিয়াসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email