শুধু দল থেকে বহিষ্কার নয়, লতিফকে শাস্তি দিতে হবে

0
266

ঢাকা: আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীকে শুধু দল থেকে বহিষ্কার করলেই চলবে না বলে তাকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন দেশের শীর্ষ উলামায়ে কেরাম। বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা এ দাবি জানান। যুক্ত বিবৃতিতে শীর্ষ ওলামায়ে কেরাম বলেন, স্ব-ঘোষিত ধর্মদ্রোহী মুরতাদ আ. লতিফ সিদ্দিকীকে শুধু দল থেকে বহিস্কার করলেই চলবে না বরং অবিলম্বে তাকে পুনরায় গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। মুরতাদ লতিফ গংদের উপযুক্ত শাস্তি না হওয়ায় বিতর্কিত লেখক আ. গফফার চৌধুরীদের মত নতুন নতুন মুরতাদরা আস্কারা পাচ্ছে।

শীর্ষ উলামায়ে কেরাম আরো বলেন, মুরতাদ আ. গাফফার চৌধুরীর নাগরিকত্ব বাতিল করতে হবে। মুরতাদ লতিফ সিদ্দিকী গংদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার লক্ষে সংসদের চলতি অধিবেশনেই মুরতাদদের মৃত্যুদ-ের বিধান প্রনয়ণ করতে হবে। এখনই যদি মুরতাদ লতিফ গফফার গংদের শাস্তির ব্যাপারে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ না করা হয় তাহলে ঈদের পর লাগাতার কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে ঈমানী ও নৈতিক অধিকার আদায় করা হবে ইনশাআল্লাহ।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন, শীর্ষ আলেমেদ্বীন রাবেতা আলম আল-ইসলামীর স্থায়ী সদস্য ও সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের সভাপতি মাওলানা মুহিউদ্দীন খান,আল্লামা সুলতান যওফ নদভী, মাওঃ মোহাম্মাদ ইসহাক, মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী, অধ্যক্ষ মাওলানা যাইনুল আবেদীন, মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, মাওলানা মহিউদ্দীন রব্বানী, ড. মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী, শাহতলীর পীর মাওঃ আবুল বাসার, ফরায়েজী আন্দোলনের আমীর মাওলানা আব্দুল্লাহ মোঃ হাসান, ইসলামী কানুন বাস্তবায়ন পরিষদের আমির মাওলানা আবু তাহের জিহাদী, হক্কানী পীর মাশায়েখ পরিষদের মহাসচিব মাওঃ শাহ আরিফ বিল্লাহ সিদ্দীকি, মীরের সরাইর পীর সাহেব মাওঃ আঃ মোমেন নাছেরী, টেকের হাটের পীর সাহেব মাওঃ কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী, খেলাফত যুব আন্দোলনের আমির মুফতি ফখরুল ইসলাম, মুফতি মাওলনা আবদুর রহমান চৌধুরী, মাওঃ আজিজুল হক ইসলামাবাদী, মাওঃ সালেহ সিদ্দীকি, আইম্মাহ পরিষদের মহাসচিব মাওঃ এনামুল হক মুসা, মাওঃ  হাফেজ আবুল হোসাইন প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email