সংবিধান ও আইন পরিপন্থি কাজ করতে দেওয়া হবে না: প্রধান বিচারপতি

0
269

ঢাকা: বাংলাদেশে আর কাউকে সংবিধান ও আইনের পরিপন্থি কাজ করতে দেয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। গতকাল রাতে জেলা আইনজীবি সমিতির বার্ষিক নৈশভোজ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। আইনজীবিদের অস্বীকার করে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
আইনজীবিদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা হলেন সমাজের বিবেকবান মানুষ, আইন পেশাকে রাজনীতিতে ব্যবহার করবেন না। বর্তমানে আমরা দেশের বিভিন্ন জায়গায় দেখতে পাই বারের নির্বাচনে কে সভাপতি ও কে সেক্রেটারী হবেন এটা রাজনীতিবিদরা নির্ধারণ করে দেন। তিনি বলেন, এটা আমাকে খুব বেশি পীড়া দেয়। রাজনীতির আলাদা প্লাটফর্ম রয়েছে। অর্থনীতি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক দিক দিয়ে আমাদের দেশ আগের চেয়ে অনেক অগ্রসর হচ্ছে।
তিনি সারা দেশের আইনজীবিদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিচারকদের সাথে আপনাদের মনোমালিন্য হলে কোর্ট বয়কট করবেন না। প্রয়োজনে বিষয়টি প্রধান বিচারপতি হিসেবে আমাকে জানাবেন। আমি সমাধান করতে ব্যর্থ হলে আপনারা তখন কোর্ট বয়কট করতে পারেন।
জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এডভোকেট আব্দুল মোছাব্বির এর সভাপতিত্বে এবং এডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম জাবেদ এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোতাহের আলী, জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শফিকুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মোঃ শাহজালাল, এডভোকেট মুজিবুর রহমান মুজিব, মোঃ আবু তাহের প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে আরো বলেন, আমরা আজব দেশে বাস করি। বিশ্বের অন্যান্য দেশে বিচারকরা অবসরে যাওয়ার পর আর কোন মামলার রায় লিখতে পারেন না। আমাদের দেশে অতীতে এ রকম রায় দিলেও এখন থেকে আর এ সুযোগ দেওয়া যাবে না। অতীতে যারা এরকম সুযোগ দিয়েছেন তাদের মধ্য থেকে কেউ বুঝে আবার কেউ না বুঝে সুযোগ দিয়েছেন।
তিনি আরো বলেন আমি মৌলভীবাজারের আনইজীবিদের সাথে বসলে মনে হয় আমার নিজের বাড়িতে বসেছি। বক্তব্যের শুরুতে জেলায় কর্মরত মিডিয়া কর্মীদের ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানে রাজনীতিবীদ, ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার লোক উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email