সরকারের চলতি মেয়াদেই বাংলাদেশ দারিদ্র্যমুক্ত হবে: অর্থমন্ত্রী

0
329

muhit 01
ঢাকা: অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, বর্তমান সরকারের চলতি মেয়াদেই বাংলাদেশ দারিদ্র্যমুক্ত হবে। এ কথা বলার পর কেউ আমাকে পাগল বললেও বলতে পারেন। কিন্তু আমি বলছি, ২০১৮ সালের মধ্যে আমাদের এই দেশ দারিদ্র্যমুক্ত হবেই হবে। আর ২০২১ সালের পরে দেশে কোনোভাবেই অতিদরিদ্র বলে কিছু থাকবে না। যাদের দৈনিক আয় দিনে এক ডলারের কম, জাতিসংঘের বিচারে তারাই দরিদ্র। এই হিসাবে ছয়শ কোটির বেশি জনসংখ্যার এই বিশ্বে প্রায় ১২০ কোটি মানুষ দরিদ্র। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর হিসাবে দেশের মোট জনসংখ্যার ২৬ শতাংশ বর্তমানে দরিদ্র। আর মাথাপিছু বর্ষিক আয় এক হাজার ১৯০ ডলার, অর্থাৎ, দিনে তিন ডলারের বেশি।
অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের কোনো দেশই একেবারে দারিদ্র্যমুক্ত নয়। তাই দারিদ্র্যসীমা ১৫ শতাংশের নিচে নেমে এলে একটি দেশকে দারিদ্র্যমুক্ত বলে ধরা হয়। আমাদের হিবেবে ২০১৮ সালে বাংলাদেশে দারিদ্র্যের হার নেমে আসবে ১৪ শতাংশে। তখন বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত বলা যাবে। অর্থমন্ত্রী বেশ জোর দিয়েই দাবি করেন, বিশ্ব ব্যাংক বলছে, ২০৩০ সালের পর বাংলাদেশ দারিদ্র্যমুক্ত হবে। আর আমি বলছি, ২০২১ সালের পর বাংলাদেশে অতিদরিদ্র বলে কিছু থাকব না।
বৃহস্পতিবার সরকারি প্রতিষ্ঠান সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন -এসডিএফ রাজধানীর আগারগাঁওয়ের এলজিইডি মিলনায়তনে এ সেমিনারের আয়োজন করে। ক্ষুদ্র ঋণের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচনে কাজ করছে এ সংস্থাটি। সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। অন্যদের মধ্যে বিশ্ব ব্যাংকের পরিচালনা উপদেষ্টা ক্রিস্টিন ই কাইমস, বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান-বিআইডিএসের গবেষণা পরিচালক বিনায়ক সেন, এসডিএফের চেয়ারম্যান এম আই চৌধুরী সেমিনারে বক্তব্য দেন।

Print Friendly, PDF & Email