সাকা-মুজাহিদের প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য

0
138

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মুজাহিদের প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে। দুপুরে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক গণমাধ্যমকে জানিয়েছন, ক্ষমা চেয়ে তারা দু’জন প্রাণভিক্ষার আবেদন করেছেন। তবে দুই জনের পরিবারের পক্ষ থেকে প্রাণ ভিক্ষা চাওয়ার বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি।

সালাউদ্দীন কাদের চৌধুরীর স্ত্রী ফারহাত কাদের চৌধুরীও এ খবরটিকে অবিশ্বাস্য বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেন, তারা আইনজীবীর মাধ্যমে দুদিন ধরে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর সাথে দেখা করতে চেষ্টা করছেন কিন্তু ব্যর্থ হচ্ছেন। সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর সাথে দেখা করা গেলে এ বিষয়ক বিভ্রান্তি দূর হতো বলে তিনি উল্লেখ করেন। এর আগে আজ এক সংবাদ সম্মেলনে ফারহাত কাদের চৌধুরী বলেন, প্রাণভিক্ষার আবেদন করাটা সালাউদ্দিন চৌধুরীর ব্যক্তিগত ব্যাপার। আইনজীবীদের সাথে কথা বলে তিনি নিজেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

এদিকে রাষ্ট্রপতির কাছে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের প্রাণ ভিক্ষার আবেদনের সংবাদ ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছেন তার স্ত্রী। তিনি বলেন, কারা কতৃপক্ষের তথ্যের ভিত্তিতে গণমাধ্যমে রাষ্ট্রপতির কাছে মুজাহিদের প্রাণ ভিক্ষার যে প্রচার ও প্রকাশিত হচ্ছে তা সম্প্রর্ণ ভিত্তিহীন।

তিনি জানান, তার স্বামী আইনজীবিদের পরামর্শের বাইরে কোন সিন্ধান্ত নেননি এবং নেবেন না। গত দুইদিন ধরে তার আইনজীবিরা মুজিহিদের সাথে সাক্ষাত পর্যন্ত করতে পারেন নি। যার কারণে মুজাহিদ পরবর্তী করনীয় নিয়ে এখনো কোন সিদ্ধান্ত নেননি। কিন্তু একটি মহল তার উদ্দেশ্যমূলকভাবে তা গনমাধ্যমে ছড়িয়ে তাদের বিভ্রন্ত করছে। তাই এসব সংবাদে কান না দেয়ার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।

এদিকে বেলা আড়াইটার পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, প্রাণ ভিক্ষার আবেদন মন্ত্রণালয়ে নিয়ে আসা হচ্ছে। কারাকর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানিয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা ক্ষমার আবেদন করলে তারা কারাকর্তৃপক্ষের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়  হয়ে আইন মন্ত্রণালয়ে যায়। সেখান থেকে প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ে পাঠানো হয়। আইনমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে প্রেসিডেন্ট এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবেন।

Print Friendly, PDF & Email