সালাহউদ্দিনের রুলের আদেশ ২০ এপ্রিল

0
195

Salah Uddin
ঢাকা: বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদকে খুঁজে বের করে হাজির করার নির্দেশ সংক্রান্ত হাইকোর্টের রুলের আদেশের দিন পিছিয়ে আগামী ২০ এপ্রিল পুনর্নির্ধারণ করেছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার আদেশের দিন ধার্য ছিল। তবে আরও তথ্য-উপস্থাপন করবেন জানিয়ে সময়ের আবেদন জানান আবেদনকারী বাদীপক্ষে খন্দকার মাহবুব হোসেন। এ আবেদনের প্রেক্ষিতে আদেশের দিন পিছিয়ে আগামী ২০ এপ্রিল পুনর্নির্ধারণ করেন বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের হাইকোর্ট বেঞ্চ। গত ৮ ও ৯ এপ্রিল দুই দিনের শুনানি শেষে বুধবার আদেশের দিন ধার্য করেছিলেন আদালত।
শুনানিতে আবেদনকারী বাদীপক্ষে অংশ নেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ও খন্দকার মাহবুব হোসেন। শুনানিতে খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, নিখোঁজের আগে সালাহউদ্দিন আহমেদের দুই জন কর্মচারীকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল ৠাব। তাদের কাছ থেকেই ঠিকানা নিয়ে সালাহউদ্দিনকেও ৠাবই তুলে নিয়েছে। সালাহউদ্দিনকে খুঁজে বের করতে ব্যর্থতা চিহ্নিত করতে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনেরও আরজি জানান খন্দকার মাহবুব। তিনি বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তাকে নিয়ে গেছে। যদি নাও নিয়ে থাকে, তাহলে খুঁজে বের করার দায়িত্ব তাদেরই। খুঁজে পেতে ব্যর্থতা ও কারা কারা ব্যর্থ, সেগুলো চিহ্নিত করতেই বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের আরজি জানান তিনি।
অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে অংশ নিয়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মমতাজউদ্দিন ফকির বলেন, রুলের সময়সীমা শেষ হয়ে যাওয়ায় এ রুল আর চলতে পারে না। তিনি বলেন, আদালত যে সময়সীমা (১৫ মার্চের মধ্যে) নির্ধারণ করে রুল জারি করেছিলেন, তা শেষ হয়ে গেছে। আমরা (রাষ্ট্রপক্ষ) আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিবেদনের ভিত্তিতে রুলের জবাব দিয়ে দিয়েছি। ফলে রুল আর কার্যকর নেই, এ রুল চলতে পারে না। এর আগে গত ১৫ ও ১৬ মার্চ আরও দুই দিন এ রুলের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। আবেদনকারী বাদীপক্ষে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ১৬ মার্চ চারটি পয়েন্টে শুনানি করতে চাইলেও সময় শেষ হওয়ায় সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন ছুটি শেষে ৮ এপ্রিল পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করে দেন।

Print Friendly, PDF & Email