সিলেটে চার আলেম মনীষীর জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

0
919

নিজস্ব প্রতিনিধি:  সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, সিলেটের বিশিষ্ট চার আলেম নিজ নিজ অবস্থান থেকে শিক্ষা, সমাজ ও জাতি গঠন, ইসলামের প্রচার ও প্রসার এবং দেশ ও জাতির কল্যাণে নিঃস্বার্থে আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। তাঁদের কাছ থেকে শিক্ষা অর্জন করে অসংখ্য আলেম উলামা খ্যাতি অর্জন করেছেন। তিনি বলেন, তারা সত্যিকারের আলেম ছিলেন। তাঁদের আদর্শকে অনুস্মরণ করে আমাদেরকে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। তিনি আলেম উলামাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ইসলাম প্রচারের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।

তিনি ২৯ এপ্রিল সোমবার বিকাল ৩টায় সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে জামিয়া নাজাতুল উম্মাহ সিলেট এর উদ্যোগে সিলেটের বিশিষ্ট চারজন আলেম জামিয়া মাহমুদিয়া সোবহানীঘাটের প্রতিষ্ঠাতা মুহতামিম মাওলানা শফীকুল হক আমকুনী রহ., জামিয়া মাদানিয়া কাজির বাজারের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবীবুর রহমান রহ., জামিয়া কাসিমুল উলুম দরগাহে হযরত শাহজালাল (র:) এর মুহতামিম মুফতি আবুল কালাম জাকারিয়া রহ. ও হযরত শাহপরান রহ. জামে মসজিদের খতিব মাওলানা খলিলুর রহমান (হাজীসাব হুজুর) রহ: এর জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

জামিয়া নাজাতুল উম্মাহ সিলেট এর শায়খুল হাদীস মাওলানা মনসুরুল হাছান রায়পুরীর সভাপতিত্বে ও জামিয়ার মুহতামিম মাওলানা তোফায়েল আহমদ উসমানীর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি আলহাজ¦ শফিকুর রহমান চৌধুরী, আল্লামা শায়খ আব্দুস শহীদ গলমুকাপনী, জামেয়া দারুল কুরআন মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুজ্জামিল হক চৌধুরী, মাওলানা হাফিজ আব্দুর রহমান সিদ্দিকী, আলহাজ¦ মাওলানা আব্দুল মতিন নবীগঞ্জী, মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, এজহারে হক নিউ কাসিল ইউকে’র সেক্রেটারী, কমিউনিটি নেতা আলহাজ¦ মোঃ আনহার মিয়া, প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহমুদুল হাসান, সিলেট মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন আহমদ মাসুক, মাওলানা মোস্তফা কামাল, মাওলানা আব্দুল মুকিত চৌধুরী, মাওলানা হাবীব আহমদ শিহাব, মাওলানা জহুরুল হক, মাওলানা নূর আহমদ কাসেমী, হাফিজ মাওলানা মুজাক্কির হোসেন।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, জামিয়ার সহ সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ আলী আকিক, দরগাহ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি শামসুজ্জামান, মুফতি আবুল কালাম জাকারিয়া রহ. ছেলে হাফিজ মাওলানা হাব্বান আহমদ, জামাতা মাওলানা মুজ্জামিল হক, মাওলানা খলিলুর রহমান রহ. ছেলে মাওলানা রুম্মান আহমদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিরাজুল হোসেন আলমগী, ফুলকলির জি.এম জসিম উদ্দিন, মাওলানা আবু বকর সরকার, সাংবাদিক রুহুল আমীন নগরী, জামিয়া নাজাতুল উম্মাহর মুহাদ্দিস মাওলানা মহিউদ্দীন মাসুম, সৈয়দ মাওলানা মুতাহির আলী, মাওলানা আরশদ নোমান, মাওলানা কায়সান মাহমুদ আকবরী, মাওলানা আব্দুল জব্বার শামীম, মাওলানা সাজ্জাদুর রহমান মাওলানা হোসাইন আহমদ, ব্যবসায়ী শাহীন আহমদ, মৌলভী কারী আনোয়ার হোসেন তালুকদার, মৌলভী কারী মাছুম আহমদ তালুকদার প্রমুখ।

শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ রফিকুল ইসলাম ও মোঃ সাদী। বক্তারা বলেন, ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে যখনই কোন ষড়যন্ত্র হয়েছে, মরহুম আলেমগণ বজ্রকন্ঠে তার প্রতিবাদ করেছেন। কখনোই অন্যায়ের কাছে মাথা নত করেননি। ইসলামি আন্দোলন ও সংগ্রামে তাঁদের অবদান চির অম্লান হয়ে থাকবে। তাঁরা ছিলেন দেশপ্রেমিক ঈমানদার তৌহিদী জনতার কল্যাণকামী মহান অভিভাবক। সকল বাধা উপেক্ষা করে দুর্ভেদ্য প্রাচীর ডিঙ্গিয়ে শাসকগোষ্ঠীর মুখোমুখি দাঁড়িয়েও ইসলামের আওয়াজকে উচ্চকিত করতেন তারা। মরহুমগণ শুধুই আলেম নয়, সত্যবাদী ও ন্যায় বিচারক ছিলেন। তাঁদের জীবন ও কর্ম বিষয়ে নতুন প্রজন্মকে জানানোর পাশাপাশি জীবন ও পথচলা সম্পর্কে একটি জীবনী গ্রন্থ প্রকাশ করতে হবে।বক্তারা আরো বলেন, তারা ছিলেন আপোসহীন সংগ্রামী আলেম। নাস্তিক মুরতাদরা তাঁদের ভয়ে সব সময় আতঙ্কিত থাকত। ইসলাম বিদ্ধেষীদের বিরুদ্ধে সাহসী ও বলিষ্ঠ উচ্চারণ। সারা জীবন ইসলাম ও মুসলিম উম্মাহের কল্যাণে কাজ করে গেছেন। দ্বীনি শিক্ষা প্রচার ও প্রসারে যে অনন্য ভূমিকা পালন করে গেছেন তা ইতিহাসে চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। মরহুম আলেমগণ আল্লাহ ছাড়া কাউকেও ভয় করতেন না। মহানবী রাসুল সাঃ ও সাহাবায়ে কেরাম রাঃ এর মর্যাদা রক্ষায় তাঁদের বিপ্লবী বক্তৃতা ও লিখনী আমাদের প্রেরণার শক্তি।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেছেন, মরহুম আলেমগণ আল্লাহ জমিনে আল্লাহর খেলাফত প্রতিষ্ঠার জন্য জীবনের শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত কাজ করে যে বিপ্লবী চেতনা রেখে গেছেন তা ইতিহাসে স্বর্ণ অক্ষরে লেখা থাকবে। তাদের সকল দ্বীনি আমানত সমূহকে দেখবাল করা আমাদের সকলের ঈমানী দায়িত্ব।মরহুমদের রূহের মাগফেরাত কামনা করে এবং দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন আল্লামা শায়খ আব্দুস শহীদ গলমুকাপনী।