সীমান্তে বিএসএফের পিটুনিতে বাংলাদেশী রাখাল নিহত

0
141

নিউজ ডেস্ক: যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানার পুটখালী সীমান্তের বিপরীতে ভারতের আংরাইল সীমান্তে বিএসএফের পিটুনিতে মনিরুল (৩২) নামে এক বাংলাদেশী রাখাল নিহত হয়েছেন। ভারতের চব্বিশ পরগনা জেলার গাইঘাটা থানা পুলিশ মঙ্গলবার তার লাশ সীমান্তের ইছামতি নদী থেকে উদ্ধার করে। নিহত মনিরুল বেনাপোল পোর্ট থানার পুটখালী ইউনিয়নের বালুন্ডা গ্রামের মুনসুরের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, মনিরুল বাংলাদেশী গরু ব্যবসায়ীদের কেনা গরু ভারত সীমান্ত থেকে বাংলাদেশে নিয়ে আসতেন। মঙ্গলবার ভোরে তিনি গরু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুটখালী সীমান্তের ইছামতি নদীর পাড়ে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী-বিএসএফ সদস্যরা ধাওয়া করলে অন্যরা পালিয়ে যায়। মনিরুল বিএসএফের হাতে ধরা পড়ে। তাকে পিটিয়ে হত্যা করে বিএসএফ সদস্যরা। মৃত্যু নিশ্চিত হলে লাশ ইছামতি নদীর বাংলাদেশ অংশ থেকে ২৫০ গজ দূরে ভারতীয় অংশে ফেলে রাখে বিএসএফ। বেলা ১১টার দিকে বিএসএফের মাধ্যমে খবর পেয়ে ভারতের চব্বিশ পরগনা জেলার গাইঘাটা থানা পুলিশ নদীতে ভাসমান অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বনগাঁ হাসপাতালে পাঠানো হয়। লাশ বর্তমানে সেখানে রয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। নিহতের স্বজনরা জানান, মনিরুল ভারতে গরু আনতে গিয়েছিলেন। ফেরার সময় আংরাইল সীমান্তে বিএসএফ সদস্যরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন পুটখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল গফফার।

পুটখালী বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার ফরিদ উদ্দিন জানান, এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে বিএসএফের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আবদুর রহিম জানান, বিএসএফের কাছ থেকে তারা জানতে পেরেছেন, সকালে এক যুবকের লাশ নদীর পাড় থেকে ভারতীয় পুলিশ উদ্ধার করে নিয়ে গেছে। তবে তিনি মনিরুল কিনা এ বিষয়ে বিএসএফ নিশ্চিত করে কিছু জানায়নি।

Print Friendly, PDF & Email