সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে কলেজ ছাত্রীকে এসিড নিক্ষেপ, আটক ১

0
194

নাইম-তালুকদার: সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় এক কলেজ ছাত্রীকে এসিডে দিয়ে ঝলসে দিয়েছে মোহন মিয়া নামের এক দুর্বৃত্ত। বৃহস্পতিবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ফেনারবাঁক ইউনিয়নের ল´পুর গ্রামের বিলপাড়া হাটিতে। এ ঘটনায় একই গ্রামের ছালেক মিয়ার পুত্র বখাটে মোহন মিয়া (২০) কে আটক করেছে পুলিশ। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, এসিড দগ্ধ মেয়েটি সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। ছুটিতে তার নিজ গ্রামের বাড়ী আসে গত সোমবারে। ওই রাতে একটি মোবাইল নাম্বার থেকে তার ব্যাক্তিগত মোবাইলে একজন ফোন করে তাকে প্রেম ও বিয়ের কথা বলে। ছেলেটির ফোনে কোন পাত্তা না দেয়ায় মোহন নামে ছেলেটি মেয়েটিকে ফোনে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখায়। মেয়েটি মোহন মিয়াকে চিনতে পারায় মেয়ের বাবা মা গত মঙ্গলবার ছেলের মা বাবার নিকট তার ছেলের মোবাইল ফোনে হুমকির বিষয়টি অবগত করে আসেন।

বুধবার রাতে মেয়েটি যখন তার ঘরে ঘুমাচ্ছিল, ভোররাতে মোহন বাঁশের দরজা খুলে ঘরে ডুকে ঘুমন্ত অবস্থায় পেয়ে মেযেটির মুখে এসিড ঢেলে দেয়। সঙ্গে সঙ্গে মেয়েটির আর্ত চিৎকারে ঘরের লোকজন ও পাড়া প্রতিবেশীরা ঝড়ো হলে মোহন মিয়া এসিড মেরেছে বলে মেয়েটি চিৎকার করতে থাকে। এসিড দগ্ধ কলেজ ছাত্রীকে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় গ্রাম থেকে ট্রলার যোগে জামালগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে আসলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সিলেট এম.এ.জি উসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যপারে জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইন চার্জ মোঃ আতিকুর রহমান জানান, ঘটনার খবব পেয়ে দ্রুত পুলিশ পাটিয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শনে যার নাম প্রাথমিক ভাবে শুনাগেছে সেই মোহন মিয়া কে আটক করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email