সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচন: নানামুখী তৎপরতা সম্ভাব্য প্রার্থীদের

0
199

হাবিবুর রহমান : আগামী ১০ ও ১১ মার্চ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আগামী বুধবারের মধ্যে এ নির্বাচনের তফসিল এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনারের নাম ঘোষণা করা হবে বলে সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বুধবার সমিতির সভায় সব কিছু চূড়ান্ত হবে।

আইনজীবীদের শীর্ষ সংগঠন সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে এবার কারা প্রার্থী হচ্ছেন তা নিয়ে আইনজীবীদের মধ্যে নানামুখী আলোচনা ও তৎপরতা দেখা গেছে। বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সমর্থক সম্ভাব্য প্রার্থীরা এরই মধ্যে আইনজীবীদের সাথে যোগাযোগ করছেন, কুশলবিনিময় ও প্রার্থিতার পক্ষে সমর্থন চাইছেন।

অন্য দিকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন ২০২১-২২ উৎসবমুখর পরিবেশে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম সুপ্রিম কোর্ট বার ইউনিটের উদ্যোগে মনোনয়নপত্র বিতরণ ও জমা নেয়া হয়। গত ৮ ফেব্রুয়ারি আইনজীবী ফোরামের মনোনয়ন বিতরণ ও জমা নেয়া শেষ হয়। এখন মনোনয়ন বোর্ড ঠিক করবে কারা আইনজীবী ফোরাম থেকে প্রার্থী হবেন। এরই মধ্যে সভাপতি পদে ফোরাম থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন ফোরামের সদস্য সচিব ফজলুর রহমানসহ আরো একজন আইনজীবী এবং সম্পাদক পদে মনোনয়নপত্র নিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট বারের বর্তমান সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, আইনজীবী মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার মো: মনিরুজ্জামান আসাদসহ ছয়জন। তবে সভাপতি পদে ফজলুর রহমান ও সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল আইনজীবী ফোরামের মনোনয়ন পেতে পারেন বলে আইনজীবীরা জানিয়েছেন।

অন্য দিকে আওয়ামী লীগ সমর্থক আইনজীবীদেরও নানামুখী তৎপরতা দেখা গেছে। সম্ভাব্য প্রার্থীদের আইনজীবীদের সাথে কুশলবিনিময় করতে দেখা যাচ্ছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে আওয়ামী লীগ সমর্থক আইনজীবীদের সভায় বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্রার্থী চূড়ান্ত হবে বলে জানা গেছে। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, এবার বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ থেকে সভাপতি পদে সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু প্রার্থী হতে পারেন। এ ছাড়া সভাপতি পদে সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক ড. মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদীর নামও শোনা যাচ্ছে। এ ছাড়া আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ থেকে সম্পাদক পদে আইনজীবী আবদুর নুর দুলাল, আবদুল আলিম মিয়া জুয়েল, শাহ মনজুরুল হক ও মোতাহার হোসেন সাজুর নাম শোনা যাচ্ছে। প্রার্থিতার বিষয়ে মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদী বলেন, আমি করোনাকালীন সময় নিয়মিত কোর্ট খোলার দাবিতে আন্দোলন করেছি। ফৌজদারি মোশন, রিট মোশন ও হিয়ারিংয়ের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃদ্ধি করার দাবিতে আন্দোলন করেছি। আমি সব সময় আইনজীবীদের পাশে থেকেছি। আমি আইনজীবীদের পাশে পাবো বলে আশা করি।

ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, আইনজীবীদের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। সব সময় আইনজীবীদের পাশে ছিলাম এবং আগামীতেও থাকব। আইনজীবীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী উন্নয়ন কাজ চালিয়ে যেতে চাই। অপেক্ষমাণ কাজগুলো সমাপ্ত করে যেতে চাই। এ জন্য আইনজীবীদের সমর্থন প্রত্যাশা করছি।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির বর্তমান সভাপতি সিনিয়র আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন এবং সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

২০২০-২১ সেশনের নির্বাচনে সরকার সমর্থিত সাদা প্যানেল থেকে সভাপতিসহ মোট ছয়টি পদে এবং সম্পাদকসহ মোট আটটি পদে নির্বাচিত হয় বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা। গত ১৩ মার্চ প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সিনিয়র আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফ ফলাফল ঘোষণা করেন।

সূত্র : নয়াগিন্ত

Print Friendly, PDF & Email