সুরঞ্জিতের উদ্দেশ্যে অধিনায়ক মাশরাফির চিঠি !

0
139

নিউজ ডেস্ক: ইসলাম ধর্মবিদ্বেষী মনোভাব প্রকাশের পর রেলমন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের উদ্দেশ্যে গতকাল একটি ভিডিও প্রেস রিলিজ পাঠিয়েছেন বাংলা জাতীয় টিমের অধিনায়ক ক্রিকেটার মাশরাফি। দেশের সব ধর্ম বর্ণ গোত্রের মানুষদের মধ্যে শান্তি বজায় রাখতে দেয়ার কথা জানিয়ে মাশরাফি সুরঞ্জিতের উদ্দেশ্যে বলেন, মিস্টার সুরঞ্জিত সাহেব আপনি একের পর এক ধর্মবিরোধী মন্তব্য করে এপর্যন্ত বেশ সমালোচিত হয়েছেন ।

এবার ঢাকায় ব্লগার ও প্রকাশক খুনের ঘটনায় আবারো ধর্ম অবমাননাকর মন্তব্য করলেন আপনি সুরঞ্জিত। দেশের সমসাময়িক পরিস্থিতি নিয়ে আপনি বললেন “উগ্রাবদীরাই এসব খুন খারাবি করে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করছে। তাই সর্বপ্রথম দেশের সব মসজিদ মাদ্রাসায় তালা ঝুলিয়ে দিতে হবে। যতদিন পর্যন্ত দেশে ধ‍ার্মিকতা থাকবে, ততদিন পর্যন্ত অরাজকতা থামানো যাবেনা।”
মিস্টার বাবু একবার নিজেকে আইনার সামনে রেখে দেখুন, হ্যা একমাত্র আপনাদের মত কট্টরপন্থীদের কারনে গোটা হিন্দু সমাজকে “মালাউন” নামক গাল শুনতে হচ্ছে। আপনাকে বলছি গায়ে বৈধ রক্ত থাকলে উত্তর দিন, কয়েকদিন আগে চট্টগ্রাম বিশ্ব বিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের অন্তদ্বন্দে বিপুর পরিমান
দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার হয়েছে, এরুপ আগেও অনেক উদ্ধার হয়েছে শুধু চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে নয় দেশের প্রায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং এইসব অস্ত্রের ধারক বাহক শুধু ছাত্রলীগ নয়, অনেক ছাত্র সংগোঠনই আছে- এখন বলুন আপনি কয়বার বিবৃতি দিয়েছেন যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে বন্ধ করতে হবে, জাহাঙ্গীর বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা জগন্নাথ কিংবা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে তালা ঝুলাতে হবে? কয়বার বলেছেন???
বাংলাদেশে যতদিন থেকে মসজিদ-মাদ্রাসা আছে ততদিন থেকে এইসব যায়গায় কয়টা অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে? কিন্তু চ্যালেঞ্জ রইলো গত এক বছরে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেতে যতগুলো অস্ত্র বোমা উদ্ধার হয়েছে মসজিদ মাদ্রাসার সারাজীবনে তা এক কোনাও উদ্ধার করতে পারে নি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী- তবুও কি শুধু মসজিদ-মাদ্রাসায় তালা দিতে হবে? বাপের রাজত্ব পাইছেন? যখন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অহরোহ ধর্ষনের মত ঘটনা ঘটছে, ধর্ষনের সেঞ্চুরী উদযাপন করা হচ্ছে তখন টকমারানী কথায় যায় আপনাদের? তখনতো কেউ বলে যে বিশ্ববিদ্যালয়ে তালা লাগাও?
অথচ ইসলামে যখন কিছু অপব্যাখ্যাকারীর কারনে ব্যতিক্রম ঘটে তখন হাউমাউ শুরু হয়ে যায় আপনাদের, মিডিয়া ও আপনার মত কুতসিত ব্যক্তিরা সব দোষ ইসলামকে দিয়ে, সব দোষ মসজিদ মাদ্রাসাকে দিয়ে মাস মাস টকমারানী করেন। একটু দেশের মানুষের সাথে মিশে দেখেছেন যে আপনাদের এই দ্বিমুখীতা আচরন আপনাদের কোন তলানীতে নিয়ে গেছে??
তলানীতে গেছে বলেইতো আজ উগ্রবাদীদের হাতে যখন কোন ব্লগার মারা যাচ্ছে তখন দেশের মানুষ বেশিভাগ মানুষকে আফসোস করতে দেখা যাচ্ছে না, কিন্তু কেন? তা কি একটু ভাববেন না আপনরা, আপনাদের এই দ্বিমুখীতা আচরনে যদি ভবিষ্যতেও কোন উগ্রবাদীর হাতে কেউ মারা যায় তবুও দেখবেন আপনার জনসমর্থনের অভাব নামক খরা রোগেই ভুগবেন।
সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত জ্বি হ্যা আপনাকেই বলছি, আর ইসলাম নিয়ে বাজে মন্তব্য করে নিজেই নিজেকে সমর্থনহারা করবেন না। এর আগেও অনেকবার আপনি এরুপ বিরুপ মন্তব্য করেছন, এর আগে ৯০% মুসলমানদের বসবাস আমাদের বাংলাদেশে উগ্রবাদীর দোহায় দিয়ে মুসলমনাদের সৌদি আরবে পাঠানোর কথা বলেছেন।
আজ আপনার মত কুলাংগারদের কারনে কিছু উগ্রবাদীরা হিন্দু সমাজকে “মালাউন” বলার সাহস পাচ্ছে, হ্যা আপনাদের মতই মানুষের কারনেই।দয়া করে অসাম্প্রদায়িক আমাদের বাংলাদেশকে ভারত মনে করে একে গুজরাট বানানোর পায়তারা করেন না। কারন দেশের মানুষের চুপ থাকারও একটা সীমা আছে, তাই দেশের স্বার্থে, দেশের অসাম্প্রদাকিত সম্প্রীতির স্বার্থে একচোখা নীতি পরিহার করে আবল তাবল মন্তব্য হতে বিরত থাকুন।

Print Friendly, PDF & Email