স্ট্র্যাটেজি পাল্টে তারা এখন গুপ্ত হত্যা করছে: প্রধানমন্ত্রী

0
150

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সৌদি আরবের প্রতি আমাদের বিশেষ আগ্রহ আছে। সৌদি আরবের বাদশাহ শুধু বাদশাহই নন। তিনি দুটি পবিত্র মসজিদের রক্ষণাবেক্ষণকারীও। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে তাই সৌদি বাদশাহর উদ্যোগকে সমর্থন করেছি আমি। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে তিনি যে সামরিক জোট গঠনের উদ্যোগ নিয়েছেন তা সময়োপযোগী। তাই, তার সঙ্গে আমরা শুরুতেই যুক্ত হওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছি। দুই মসজিদের নিরাপত্তার জন্য আমরা সর্বোচ্চ ভূমিকা রাখব। প্রয়োজনে বাংলাদেশ থেকে সামরিক অংশগ্রহণ থাকবে। বাংলাদেশ থেকে দক্ষ ও আধাদক্ষ শ্রমিকসহ পেশাজীবী (ডাক্তার, নার্স) নিয়োগের জন্য তিনি সৌদি বাদশাহ’র কাছে অনুরোধ করেছেন। বাদশাহ তা গ্রহণ করেছেন। আজ গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি জানান, বুলগেরিয়া, জাপান ও সৌদি আরবে তিনি একে পর এক সফর করেছেন। এসব সফরের দেশগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের ব্যপক উন্নতি হয়েছে। বিশ্ব নারী নেত্রীদের সম্মেলনে যোগ দিতে তিনি বুলগেরিয়া যান। পরে জি-৭ এর সম্মেলনে আমন্ত্রণ পেয়ে তিনি যান জাপানে। উভয় দেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তিনি দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় দেশের উন্নয়ন নিয়ে কথা বলেছেন তিনি। সব শেষে গত ৩রা জুন তিনি সৌদি সফরে যান। সেখানে বাদশাহসহ পররাষ্ট্রমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী, শ্রম ও উন্নয়ন মন্ত্রী, সহকারী প্রতিরক্ষা মন্ত্রীসহ বিভিন্ন মন্ত্রী পদমর্যাদার ব্যক্তির সঙ্গে সাক্ষাত করেন। বেশ কয়েকটি সমঝোতা স্মারকও সাক্ষর করেন। প্রধানমন্ত্রী জানান, দেশের প্রতিটি জেলায় একটি করে মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গড়ে তুলতেও সৌদি সরকার সহায়তা করবে। অভ্যন্তরীন রাজনৈতিক বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যারা আগুনে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করেছে তারা জনগণের জনসম্পৃক্ততা হারিয়েছে। ফলে স্ট্র্যাটেজি পাল্টে তারা এখন গুপ্ত হত্যা করছে। সরকার বসে নেই। যারা এসব হত্যাকান্ড ঘটাচ্ছে তাদেরকে আটক করা হচ্ছে। ইসলাম শান্তির ধর্ম। শেষ বিচারের মালিক আল্লাহ। আল্লাহই বিচার করবেন।

Print Friendly, PDF & Email