হিন্দু সংগঠনের ম্যাগাজিনে কারিনার বিকৃত ছবি

0
526

Karina Kapur
নিউজ ডেস্ক: বেশ ঝামেলায় পড়ে গেলেন বলিউড অভিনেত্রী কারিনা কাপুর। এবার ‘লাভ জিহাদ’-এর বিরোধীতা করতে এবার কারিনা কাপুরকে টেনে আনল বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। ভিএইচপি-এর একটি ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে ‘লাভ জিহাদ’-এর বিরোধীতা করতে কারিনা কাপুর খানের একটি সুপার ইম্পোসড প্রকাশ করা হয়েছে।
আর এই ছবিটি দেখার সাথে সাথে চারিদিকে হৈচৈ পড়ে যায়। তবে এমন পরিস্থিতির স্বীকার কারিনা কিছু না বললেও সুপার ইম্পোসড ছবি প্রকাশে বেজায় খেপেছেন তার স্বামী বলিউড তারকা সাইফ আলী খান। ক্ষিপ্ত সাইফ মন্তব্য করেছেন, এই ঘটনা হাস্যকর হলেও অপ্রত্যাশিত নয়…এই ধরণের অশিক্ষিত, গোঁড়া ধারণা এই দেশকে নষ্ট করছে, অবিলম্বে এই ঘটনার প্রতিবাদ হওয়া প্রয়োজন।
দূর্গাবাহিনীর উত্তর ভারতের ম্যাগাজিন ‘হিমালয় ধ্বনি’-র সাম্প্রতিক ইস্যুর প্রচ্ছদে কারিনা কাপুরের সুপার ইম্পোসড ছবিটি স্থান পেয়েছে। ছবিটির নীচে লেখা ”ধর্মান্তরণের মাধ্যমে জাতীয়তার পরিবর্তন।” ছবিটিতে এই বলিউডি তারকার মুখের অর্ধেকটা হিজাবে ঢাকা ও অর্ধেকটা সিঁদুর পরিহিত হিন্দু বিবাহিত নারীদের মত।
প্রসঙ্গত বিশ্ব হিন্দু পরিষদের যুব মহিলা সংগঠন দূর্গা বাহিনী এক ধর্মান্তরণ প্রচার অভিযান শুরু করেছে। যে হিন্দু নারীরা মুসলিম পুরুষদের বিয়ে করেছেন তাদের পুনরায় হিন্দু ধর্মে ‘রিকনভার্ট’ করাই এই প্রচারের মূল লক্ষ্য। কারিনার এই ধরণের ছবি ব্যবহারের পিছনে যুক্তি হিসাবে দূর্গা বাহিনীর আঞ্চলিক কোঅর্ডিনেটার রজনী ঠুকরাল বলেছেন,কারিনা কাপুর একজন সেলিব্রেটি। যুব সমাজ সেলিব্রেটিদের সঙ্গে অনুকরণ করে। তারা মনে করে যদি করিনা এরকম করতে পারে, আমরা কেন পারব না?
যাগাজিনটির সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে ‘বর্তমানে লাভ জিহাদ ও ধর্মান্তরণ নিয়ে প্রচুর বিতর্ক হচ্ছে। ধর্মান্তরণের জন্যই দেশ ভাগ হয়ে পাকিস্তানের জন্ম হয়েছিল। একটি হিন্দু মেয়ে লাভ জিহাদের কোপে পড়ে ভুল বশত মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করে, তাহলে কি পরে তার নিজের পুরনো ধর্মে ফিরে আসার অধিকার নেই? অদ্ভুতভাবে কিছু রাজনৈতিক দল এই ধর্মান্তরণের বিরোধিতা করে নিজেদের ধর্ম নিরপেক্ষ প্রমাণ করতে চাইছে।
এখন দেখার পালা স্ত্রীর এমন ছবি প্রচ্ছদে প্রকাশের পর সাইফ আলী খান কোন আইনি প্রক্রিয়ায় যান কিনা।
সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া

Print Friendly, PDF & Email