আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী খালেদাকে বের হতে দেয়নি: হাছান মাহমুদ

0
274

Dr. hasan mahmud 03

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত ষড়যন্ত্র করে দেশে গণতন্ত্রের অভিযাত্রাকে ব্যাহত করতে পারবে না। তিনি বলেন, বেগম জিয়াকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বের হতে দেয়নি।
তিনি বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রকে হত্যা করার জন্য দেশে বিশেষ পরিস্থিতি তৈরি করার নীলনকশা তৈরি করেছিল। গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে সকল ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হবে উল্লেখ করে ড. হাছান মাহমুদ আরো বলেন, গণতান্ত্রিক দল হিসেবে আওয়ামী লীগ দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করতে দিতে পারে না।
তিনি আজ সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচাস্থ বীরউত্তম খাজা নিজামুদ্দিন মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে ‘৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
জোটের সহ-সভাপতি মোবারক আলী শিকদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, খাদ্যমন্ত্রী এবং ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট কামরুল ইসলাম এম পি।
এতে অন্যাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক এডভোকেট বলরাম পোদ্দার ও শিক্ষক নেতা শাহজাহান আলম সাজু প্রমুখ।
ড. হাছান বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া গতকাল বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী আহমেদকে দেখার নামে বিএনপির নয়া পল্টন কার্যালয়ে অবস্থান নেয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন।
তিনি বলেন, বেগম জিয়া রাতে কার্যালয়ে অবস্থান করার পর বিএনপি নেতা-কর্মীরা সেখানে জমায়েত হয়ে বিশেষ পরিস্থিতি তৈরি করার পরিকল্পনা করেছিলেন।
তিনি বলেন, সেজন্য বেগম জিয়াকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তার বাসভবনে থাকার অনুরোধ করেছেন এবং তাকে বের হতে দেননি।
দেশে মধ্যবতী নির্বাচন এবং সংলাপ হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই উল্লেখ করে এডভোকেট কামরুল ইসলাম এম পি বলেন, ২০১৯ সালে সংবিধান অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
তিনি বলেন, সে নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে বিএনপিকে আর ভুল করা ঠিক হবে না। আগামী নির্বাচনের আরো চার বছর সময় বাকি রয়েছে। এ সময় তাদের দল গোছানো উচিত
তিনি দেশে অযথা উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি না করার জন্য বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি আহবান জানান।
সূত্র: বাসস।

Print Friendly, PDF & Email