আ.লীগের পাল্টাপাল্টি সভা, ১৪৪ ধারা জারি

0
202

144-
ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে দলীয় কার্যালয়ে একই সময়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সভা ডাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শনিবার ভোর ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত উপজেলা দলীয় কার্যালয়, রেলগেট, আশুগঞ্জ বাজার, গোলচত্বর ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সোনারামপুর হাইওয়ে রোড এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সন্ধীপ কুমার সিংহ এই ১৪৪ ধারা জারি করেন।
উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, উপজেলা অওয়ামী লীগের নবগঠিত দুই আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে দুভাগে বিভক্ত হয় উপজেলা আওয়ামী লীগ। নবগঠিত দুটি কমিটি একই দিনে (শনিবার সকাল ১১টায়) উপজেলার দলীয় কার্যালয়ে এক জরুরি সভা আহ্বান করে। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার রাতে দলীয় কার্যালয়ের সামনে উভয় পক্ষের নেতাকর্মীরা বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে যায়।
পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। এ নিয়ে উপজেলা জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। উপজেলা প্রশাসন উভয় পক্ষকে ডেকে বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়।
পরে উপজেলা প্রশাসন শনিবার ভোর ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত উপজেলা দলীয় কার্যালয়, রেলগেট, আশুগঞ্জ বাজার, গোল-চত্বর ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সোনারামপুর হাইওয়ে রোড এলাকায় ১৪৪ জারি করে।
আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সন্ধীপ কুমার সিংহ জানান, উভয় পক্ষের সঙ্গে আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছি। এতে কেউ আমাদের কথা না মানায় এলাকার শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে শনিবার ভোর ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়, রেলগেট, আশুগঞ্জ বাজার, গোল-চত্বর ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সোনারামপুর হাইওয়ে রোড এলাকায় ১৪৪ জারি ধারা জারি করা হয়েছে।
উল্লেখ্য যে, জেলা আওয়ামলী লীগ বুধবার রাতে হাজী ছফিউল্লাহ মিয়াকে আহ্বায়ক করে আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করে। অন্যদিকে বুধবার রাতেই জরুরি সভা আহ্বান করে আওয়ামী লীগ নেতা হাজী মাহবুবুর রহমানকে আহ্বায়ক করে আরেকটি পাল্টা কমিটি ঘোষণা করে পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা। পরে দুই কমিটি তাদের নেতাকর্মীদের নিয়ে রাতেই আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যলয়ে দুই গ্রুপ জরুরি সভা আহ্বান করে।

Print Friendly, PDF & Email