Home রাজনীতি জঙ্গিবাদের মূল উৎপাটন করাই সরকারের চ্যালেঞ্জ: কৃষিমন্ত্রী

জঙ্গিবাদের মূল উৎপাটন করাই সরকারের চ্যালেঞ্জ: কৃষিমন্ত্রী

411
0

নিজস্ব প্রতিবেদক: জঙ্গিবাদের মূল উৎপাটন করাই হচ্ছে আওয়ামী লীগ সরকারের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী। এসময় তিনি শ্রমিকদের অধিকার আদায়ে সরকার যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছে বলেও জানান। শুক্রবার বিকেলে কাঁচপুর ওমর আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ‘কাঁচপুর শিল্পাঞ্চল শাখা জাতীয় শ্রমিকলীগ’ আয়োজিত মহান মে দিবসের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কাঁচপুর শিল্পাঞ্চল শাখা জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি আবদুল মান্নান মেম্বারের সভাপতিত্বে শ্রমিক সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। এছাড়াও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহামদু, সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম, নারায়নগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক এমপি আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত, নারায়নগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আবদুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদনসহ আরো অনেকে।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, জঙ্গিবাদ আমাদের মূল সমস্যা। জঙ্গিবাদ দমন আমাদের চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতোমধ্যে সরকার জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করা হয়েছে। এ ছাড়াও জঙ্গিবাদ নির্মূলে সর্বাত্মক ব্যবস্থা আওয়ামী লীগ সরকার গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, জঙ্গি দমনে বাংলাদেশের সাফল্য বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে। অতীতের যে কোনো সময়ের তুলনায় বর্তমানে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো। তিনি এ অবস্থা ধরে রাখতে পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের জন্য পুলিশ সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, বিএনপি জনগণের ওপর নির্ভর না করে সন্ত্রাসের ওপর নির্ভর করে। তাই তারা পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করে। তিনি বলেন, শ্রমিক অধিকার আদায়ে ১ মে শ্রমিকরা জীবন দেয়ায় এ দিনটিকে যেমন মে দিবস হিসেবে পালন করা হয়। এ সময় তিনি বলেন, বর্তমান সরকার শ্রমিকদের অধিকার আদায়ে সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন, আপনি ইলেকশন করেন নাই। আপনার ছেলে মারা যাওয়ার পর শেখ হাসিনা আপনার গুলশানের কার্যালয়ে গেল। পৃথিবীতে কোন দেশে কোন প্রধানমন্ত্রী ছোট গেট দিয়ে ঢুকেন না। উনি (শেখ হাসিনা) প্রটোকলের দিকে তাকান নাই। আপনি যখন বড় গেট বন্ধ রাখছেন উনি ছোট গেট দিয়ে ঢোকার চেষ্টা করছেন।

সোনারগাঁয়ের সাবেক এমপি আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত বলেছেন, ষড়যন্ত্রকারীরা যতই ষড়যন্ত্র করুক না কেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন থামানো যাবে না। আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতায় আনতে সকল বেধাবেদ ভুলে নারায়নগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) বাসিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

Previous articleবিশ্বায়নের যুগে নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ সৃষ্টি হচ্ছে: স্পিকার ড. শিরীন
Next articleবিভ্রান্তিমূলক ও মিথ্যা সংবাদ প্রকাশে জাবি প্রেসক্লাবের নিন্দা