জনগণ চাইলে বিএনপিকে অবৈধ ঘোষণা: হানিফ

0
227
Hanif

ঢাকা: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, দেশের জনগণ চাইলে বিএনপিকে অবৈধ ঘোষণা করা হতে পারে। তিনি বলেন, সকল ক্ষমতার মালিক জনগণ। জনগণ যদি অবৈধ একটি দলকে ‘অবৈধ’ হিসেবে দেখতে চায় বা ঘোষণা করতে চায়, তাহলে জনগণ ইচ্ছা করলে হয়তো সেটা পরবর্তীতে হতেও পারে।
হানিফ আজ বুধবার বিকেলে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
‘প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ জাতিকে হতাশ করেছে’ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে শুধুমাত্র হতাশ হয়েছে বিএনপি নেতৃবৃন্দ। জাতি হতাশ হয় নাই। কারণ বিএনপি বর্তমান সরকারের অভাবনীয় উন্নয়ন সাফল্য দেখে হতাশ হয়েছে। আমরা বারবার বলে এসেছি বর্তমানে বাংলাদেশে রাজনৈতিক সংকট নেই। সংকট আছে খালেদা এবং তার দল বিএনপির মধ্যে। সাধারণ জনগণের মধ্যে নেই।
মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পরে গোটা জাতি নতুন করে আশার আলো দেখা শুরু করেছে। নতুন করে স্বপ্ন দেখা শুরু করেছে। ঠিক সেই সময় একাত্তরের পরাজিত শক্তি, পাকিস্তানের এজেন্ট ও প্রেতাত্মা বিএনপি প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের বিরুদ্ধে অসত্য ও মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।
তিনি বলেন, বিএনপির জন্ম হয়েছিল অবৈধভাবে। আওয়ামী লীগের জন্ম হয়েছিল ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন। এই বাংলাদেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য। এটা যদি মির্জা ফখরুল সাহেব না জেনে থাকেন, তাহলে তাকে ইতিহাস পড়ে নেয়ার অনুরোধ জানান।
হানিফ বলেন, আওয়ামী লীগ এদেশের গণমানুষের দল, ১৯৭১ সালের বহু আগেই এই দল প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তাই এদলকে অবৈধ বলার ধৃষ্টতা ভবিষ্যতে আর কোন বিএনপি নেতারা দেখাবে না এটা আমরা প্রত্যাশা করি।
আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, যে নেত্রী বাংলাদেশকে এখনো বিশ্বাস করে না। তার নেতৃত্বে যে দল বিএনপি তাদের কাছ থেকে ভাল কিছু আশা করা যায় না। সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেয়ার, যে নেত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না- সেই কারণে বিএনপির মিথ্যাচারকারী নেতাদের চিহ্নিত করে রাখুন।এদের মিথ্যাচারে বিভ্রান্ত হওয়ার সুযোগ নেই।
সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, আইন বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মতিন খসরু, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ড. আব্দুর রাজ্জাক, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য এনামুল হক শামীম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email