তাহিরপুরে এক কিলোমিটার রাস্তা মেরামত না করায় হাওরবাসীর দুর্ভোগ

0
227

তাহিরপুর: তাহিরপুরে ব্রীজের এপ্রোচের এক কিলোমিটার ইট সলিং রাস্তা মেরামত না করায় গত ৫দিন ধরে জেলা সদরের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে হাওরপাড়ের ৩টি উপজেলা। সম্প্রতি বন্যায় তাহিরপুর উপজেলার আনোয়ারপুর ব্রীজ সংলগ্ন এপ্রোচের ইট সলিং রাস্তাটি পাহাড়ী ঢলের পানির তোড়ে ভেঙ্গে যায়। এতে করে জেলার তাহিরপুর উপজেলা ও ধর্মপাশা উপজেলা অপরদিকে নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর ও কলমাকান্দা উপজেলার লোকজন সুনামগঞ্জ জেলা সদরে যাতায়াত করতে পারছেন না। তাহিরপুর-সুনামগঞ্জ সড়কটি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অদিদপ্তর এলজিইডি কর্তৃক নির্মাণ হওয়ায় ২০১১ সাল থেকেই তাহিরপুর,ধরমপাশা উপজেলার লোকজন ও নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর,কলমাকান্দা উপজেলার লোকজন স্বল্প সময়ে সুনামগঞ্জ সহ সিলেটে যোগাযোগ করতে পারছেন। অন্যদিকে টাঙ্গুয়া হাওরে ভ্রমনপিপাসু পর্যটকরাও গাড়ী চলাচলের যোগাযোগ ভাল থাকার কারণে পর্যটকদের ভীড়ও ছিল দেখার মতো।
তাহিরপুর উপজেলা সদর থেকে সুনামগঞ্জ জেলা শহরের দূরত্ব মাত্র ৩৬ কিলোমিটার। ২০১১ সালের জুন মাসের  পূর্বে পায়ে হেঁটে সুনামগঞ্জ পৌঁছতে সময় লাগত ৬ থেকে ৭ ঘন্টা। বর্ষা মৌসমে নৌ-পথে ৪ থেকে ৫ ঘন্টা। এ দূর্বিষহ যোগাযোগ ব্যবস্থা দূর হয়েছে ২০১১ সালের জুন মাসে।এখন সময় লাগে মাত্র ১ ঘন্টা। কিন্তু সম্প্রতি বন্যায় আনোয়ারপুর ব্রীজ সংলগ্ন ১কিলোমিটার ইট সলিং রাস্তা ক্ষতি হওয়ার কারণে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে হাওরবাসী।
তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন বলেন,রাস্তাটি মেরামতের জন্য প্রাক্কলন তৈরী করে সুনামগঞ্জ এলজিইডি অফিসে জমা দিয়েছি আশা করি শীঘ্রই মেরামত করা হবে।
এলজিইডি সুনামগঞ্জ নির্বাহী প্রকৌশলী সিদ্দিকুর রহমান বলেন,আনোয়ারপুর ব্রীজ সংলগ্ন রাস্তাটি মেরামতের জন্য আমরা প্রাক্কলন তৈরী করেছি। দু’একদিনের মধ্যেই কাজ শুরু করা হবে। বিশেষ করে ইদের আগে তো অবশ্যই গাড়ী চলাচলের উপযোগী করা হবে ।

Print Friendly, PDF & Email