তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৪

0
245

র‌্যাব ও পুলিশের সঙ্গে ‌‌‌কথিত বন্দুকযুদ্ধে ঝিনাইদহ, ময়মনসিংহ ও গাইবান্ধায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন মাদক ব্যবসায়ী এবং ডাকাত নিহত হয়েছেন। শনিবার (৭ জুন) দিবাগত রাত এবং রবিবার (৮ জুন) ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

ঝিনাইদহ: র‌্যাবের ‌‌‌কথিত বন্দুকযুদ্ধে ঝিনাইদহের পৌর এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে দুইজন নিহত হয়েছেন। এ সময় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে র‌্যাব। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি, ফেনসডিলি ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। রোববার (৮ জুন) ভোররাতে ঝিনাইদহ-মাগুরা মহাসড়কের পাশে পবহাটি জামতলা মোড় নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন জেলা শহরের বাঘা যতিন সড়কের রহিম বক্সের ছেলে সাজ্জাতুল ইসলাম ডিএম (৩৫) ও একই উপজেলার উদয়পুর গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৩৪)।

ঝিনাইদহ র‌্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার গোলাম মোর্শেদ জানান, ৩ টার দিকে র‌্যাব ঝিনাইদহ পৌর এলাকার পবহাটি নামক স্থানে একটি চেকপোস্ট বসায়। এ সময় একটি মোটরসাইকেলের আরোহীরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে। র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়লে দু-পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি হয়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী দুজনকে গুলিবিদ্ধ হয়। তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্তায় তাদের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় র‌্যাবের এএসআই তরিকুল ইসলাম ও ল্যান্স নায়েক আবু সাইদ আহত হয়েছেন।

র‌্যাব জানায়, নিহত মাদককারবারী সাজ্জাতুল ইসলাম ডিএম ও আব্দুর রাজ্জাক দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলো। তারা তালিকাভুক্ত মাদক কারবারী ছিলেন।

গাইবান্ধা: পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছামছুল হক (৩৮) নামে ডাকাতি মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন। পলাশবাড়ী উপজেলার সাকোয়া ব্রিজ এলাকায় রবিবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

ছামছুলের বাড়ি উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের সাকোয়া গ্রামে। তিনি আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য ও একাধিক ডাকাতি মামলার আসামি ছিলেন।

গাইবান্ধা সদর থানার ওসি খান মো. শাহারিয়ার বলেন, গাইবান্ধা সদর ও সাদুল্লাপুর থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে শনিবার দুপুরে ঢোলভাঙ্গা বাজার এলাকা থেকে ছামছুলকে গ্রেফতার করে।

ওসি আরও জানান, ছামছুল আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য ছিলেন। তার বিরুদ্ধে গাইবান্ধা সদর, সাদুল্লাপুর ও পলাশবাড়ীসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক হত্যা ও ১২টি ডাকাতি মামলা রয়েছে।

ময়মনসিংহ: ঈশ্বরগঞ্জের আঠারবাড়িতে শনিবার দিবাগত রাত সোয়া ২টার দিকে পুলিশের সঙ্গে ‌‌’বন্দুকযুদ্ধে’ ফারুক মিয়া (৩১) নামে একজন নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি নিহত ফারুক মাদক ব্যবসায়ী। তিনি ঈশ্বরগঞ্জের আঠারবাড়ি তেলুয়ারি গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। ওসি আহমেদ কবীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email