দলীয় রাজনীতি ছাড়ার ঘোষণা ড. কামালের

0
206

ঢাকা: দলীয় রাজনীতি ছাড়ার ঘোষণা দিলেন গণফোরাম সভাপতি প্রবীণ রাজনীতিক ও অন্যতম সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেন। শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ ঘোষণা দেন।
তিনি বলেন, ৮০ থেকে ৮৬ সালে রাজনীতিতে যে সংকট ছিল, বর্তমানেও সেই সংকট চলছে। তখন যেমন ছিল ভোটারবিহীন নির্বাচন, মিডিয়া ক্যু-বর্তমানেও তাই চলছে।
ড. কামাল বলেন, এই মুহূর্তে দেশে জনগণের ঐক্য দরকার। এক্ষেত্রে তরুণ সমাজই মূখ্য ভূমিকা পালন করতে পারে। যেমনটা তারা ভ্যাট-বিরোধী আন্দোলনে মাধ্যমে দেখিয়ে দিয়েছে। এ দেশে রাজতন্ত্র টিকতে পারবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
গণফোরাম সভাপতি পরিষদের সদস্য বুয়েটের সাবেক ভিপি ইঞ্জিনিয়ার আবুল কাশেম ও গণফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক নওয়াব আলীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এক শোক সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
স্বাধীনতা-পূর্বকাল থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকলেও বিরোধের জের ধরে ১৯৯২ সালে গণফোরাম গঠন করেছিলেন ড. কামাল। তবে তার দল রাজনীতিতে তেমন কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি। কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে তিনি রাজনীতি নিয়ে সবসময় সরব থেকেছেন, থেকেছেন আলোচনায়।
ব্যক্তিগত সততা, ন্যায্যতা, মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের প্রবক্তা হিসাবে তাকে সম্মান করা হয়। ১৯৭২ সালে আইনমন্ত্রী এবং ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৫ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।
ড. কামাল বলেন, আবুল কাসেম ও নওয়াব আলী যে নীতিতে রাজনীতি করেছেন আমিও সেই নীতিতে রাজনীতি করবো, কিন্তু দলীয় পরিচয়ে নয়।
শোক সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জাম, নারী নেত্রী ফৌজিয়া মুসলেম প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email