পায়ুপথে হাওয়া দিয়ে কিশোরকে হত্যা, আটক ৩

0
238

খুলনা: সিলেটে শিশু রাজন হত্যাকাণ্ডের রেশ কাটতে না কাটতেই খুলনায় নির্মম নির্যাতনের মাধ্যমে হত্যা করা হলো ১২ বছরের আরেক শিশুকে। সোমবার রাতে নগরীর টুটপাড়া এলাকায় একটি মোটর গ্যারেজে পায়ুপথে পাইপের মাধ্যমে হাওয়া ঢুকিয়ে হত্যা করা ১১ বছর বয়সী শিশু মো. রাকিবকে।

হত্যাকাণ্ডের পরপরই স্থানীয়রা গ্যারেজ মালিক মিন্টু মিয়া, কর্মচারী শরীফ এবং তার মা বিউটি বেগমকে পিটিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে।

শিশু রাকিব টুটপাড়া সেন্ট্রাল রোডের মো. আলমের ছেলে। সোমবার রাত ১০টার দিকে নগরীর টুটপাড়া সেন্ট্রাল রোডে এ ঘটনা ঘটে।

খুলনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানান, মিন্টুর মোটর গ্যারেজে কাজ করত রাকিব। হঠাৎ সে কাজ ছেড়ে অন্য গ্যারেজে কাজ নেয়।

গতরাত রাত ১০টার দিকে রাকিব তার পুরোনো কর্মস্থলের সামনে দিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় মিন্টু কাজ ছেড়ে দেওয়ার অপরাধে রাকিবকে ধরে এবং মোটর টায়ারের পাম্প দেওয়া মেশিনের পাইপ রাকিবের মলদ্বারে ঢুকিয়ে হওয়া দেয়। বাতাস ঢুকে রাকিবের পেট ফুলে যায়।

অসুস্থ অবস্থায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও আশপাশের লোকজন গ্যারেজ মালিক মিন্টু, তার ভাই শরীফকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

এ ছাড়া ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মিন্টুর মা বিউটি বেগমকেও পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়।  রাত ২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাকিবের মৃত্যু হয়। গণপিটুনিতে আহত মিন্টু ও শরীফকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রিজন সেলে ভর্তি করা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি সুকুমার বিশ্বাস।

Print Friendly, PDF & Email