Home জাতীয় মুসলিম দম্পতির খ্রিষ্টানধর্মে দিক্ষীত হওয়ার অপপ্রচারে এলাকায় তীব্র ক্ষােভ ও উত্তেজনা

মুসলিম দম্পতির খ্রিষ্টানধর্মে দিক্ষীত হওয়ার অপপ্রচারে এলাকায় তীব্র ক্ষােভ ও উত্তেজনা

560
0

নিজস্ব প্রতিবেদক: এক মুসলিম দম্পত্তির খ্রিষ্টানধর্মে দীক্ষিত হওয়ার ভােয়া খবর একটি স্থানীয় দৈনিকে প্রচার হলে এলাকার সংখ্যা ঘরিষ্ট মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে তীব্র ক্ষােভ ও উত্তেজনা দেখা দেয়। ঢাকা ধানমন্ডি এলাকার বাসিন্দা কাজী আসিফ ইকবাল ও তার স্ত্রির বিরুদ্ধে এই মিথ্যা সংবাদ প্রচার হলে তাদের জান মালের নিরাপত্তা চরম বিঘ্নিত হয়।

ঘটনার বিবরণে জানাযায়, ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার ৪১.৩/এ রোডের বাসিন্দা কাজী আসিফ ইকবাল তার স্ত্রি নুসরাত জাহান খানমের চােখের চিকিৎসার জন্য একই এলাকার ৪৯.১১/ এ রোডের বাসিন্দা খ্রিষ্টান যুবক জয়েল বাড়ই এর সাথে পুরান ঢাকার বাবু বাজারে অবস্থিত মাদার তেঁরেসা অরফানেজ মিশনারিতে যান। মিশনারির একজন ডাক্তারের অধিন কিছুদিন মিসনারীতে চিকিৎসা গ্রহন করে আরোগ্য লাভ করেন গৃহিনী নুসরাত জাহান খানম। এক পর্যায়ে ডাক্তার নার্সদের অমায়ীক ব্যবহারে এই মুসলিম দম্পতি মুগ্ধ হন! এক সময় খ্রিষ্টানধর্মের মাহাত্য বােঝার জন্য কাজী আসিফ ইকবাল ও তার স্ত্রি নুসরাত জাহান খানম সেই খ্রিষ্টান যুবক জয়েল বাড়ইয়ের কাছে তাদের অভিপ্রায় ব্যক্ত করলে জয়েল বাড়ই তাদেরকে ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত ‘মেরি কুইন এ্যাপস্টাইল ক্যাথলিক চার্চে’ নিয়ে যান এবং সেখানে ফাদারের মুখে তারা খ্রিষ্টধর্মের অমীয় বাণী শোনে মুগ্ধ হন!

প্রায়ই তারা চার্চে যেতে শুরু করে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে ভাবান্তর হয়। তারা উপলব্দি করতে পারে -পবিত্র গ্রন্থ কােরআন ও বাইবেলের মধ্যে আদর্শিক তেমন পার্থক্য নেই। তাদের এই উপলব্দির কথা এলাকায় প্রচার করলে কিছু মানুষের মনে ধারণা জন্মে যে এই দম্পত্তি খ্রিষ্টান ধর্মে দিক্ষীত হয়ে গ্যাছে। বিষয়টি এলাকায় ছড়াতে থাকে। এরই জের ধরে স্থানীয় একটি পত্রিকা আসিফ ও নুসরাত দম্পতির খ্রিষ্টান হওয়ার তথ্য বিভ্রাট সংবাদ প্রকাশ করলে এলাকার মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া ও উত্তেজনা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে এলাকার মুসলিম নেতারা এই দম্পতিকে ডেকে নিয়ে ঘটনার কারণ জানতে চাইলে তারা বলেন- পবিত্র কোরআন ও বাইবেলের মর্মবাণীর মধ্যে আদর্শিক তেমন তফাত নেই। উভয়ই আসমানি কিতাব। আপনারা চার্চে গিয়ে তা শুনলে অনুধাবন করতে পারবেন। দম্পত্বি নিজেদের খ্রিষ্টান হওয়ার কথা অস্বীকার করলেও তাদের কথা কেউ বিশ্বাস করেনি। নানা রকম নির্যাতন ও নিপীড়নের ষ্ট্রিমরোলার তাদের উপরে নেমে আসে। হামলা -মামলা দিয়ে এই দম্পত্তির জীবনকে অতিষ্ট করে তােলা হয়। তারপরও তারা লুকিয়ে লুকিয়ে চার্চে গিয়ে যীশু খ্রিষ্টের বাণী -বাইবেলের অন্তরনিহীত কল্যাণ ও আত্মিক মুক্তির কথা ; আলোর পথের সন্ধ্যান লাভে নিয়ােজিত রয়েছেন। তাদের খ্রিষ্ট ধর্মের প্রতি এত অনুরাগ -প্রীতি দেখে ধর্মন্ধরা তাদের বিরুদ্ধে পােষ্টার লিফলেট বিতরন করে নানারোপ উস্কানি দিচ্ছে। লিফলেট ও পােষ্টরে তারা খ্রিষ্টান যুবক জয়েল বাড়ইয়ের তৎপরতায় মুসলিম দম্পত্বি কাজী আসিফ ইকবাল ও তার স্ত্রি নুসরাত জাহান খানমের খ্রিষ্টধর্মের প্রচার প্রচারণা বন্ধ করা না হলে মারাত্বত পরিস্থিতি তৈরী হবে বলে হুমকি দেয়া হচ্ছে। হুমকির ফলে তারা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এব্যাপারে প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ প্রয়ােজন বলে অভিজ্ঞ মহল মনে করেন।

Previous articleপিতার সামনে ধর্ষণ করে যুবতী কন্যাকে হত্যা
Next articleখায়রুল হক বিচারিক অপরাধ করেছেন: ব্যারিস্টার মওদুদ