Home অর্থনীতি শনিবার বাণিজ্যিক এলাকা, জেলা শহরে ব্যাংক খোলা

শনিবার বাণিজ্যিক এলাকা, জেলা শহরে ব্যাংক খোলা

315
0

ঢাকা: সুষ্ঠু ব্যবসায়ীক কার্যক্রম ও নিরাপদ আর্থিক লেনদেনের সুবিধার্থে দেশের সকল বাণিজ্যিক এলাকা, জেলা শহর ও বৃহৎ শপিং মার্কেট এলাকায় আগামী শনিবার (২৪ জুন) সকল তফসিলি ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট শাখা খোলা রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বাংলাদেশ ব্যাংকের এ সিদ্ধান্ত সার্কুলার আকারে দেশে কার্যরত সকল তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের অফ-সাইট সুপারভিশন বিভাগ থেকে এ সার্কুলারটি জারি করা হয়েছে। সার্কুলারে সংশ্লিষ্ট এলকায় ব্যাংকের যেসব শাখা খোলা থাকবে সেগুলোর পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের নির্দেশও দেয়া হয়েছে।

এদিকে গত মঙ্গলবার (২০ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের অপর এক সার্কুলারে শুক্রবার (২৩ জুন) ও শনিবার (২৪ জুন) নির্দিষ্ট কয়েকটি অঞ্চলের ব্যাংকের শাখাসমূহ খোলা থাকবে বলে জানিয়েছে। তৈরি পোশাকশিল্পে কর্মরত শ্রমিক ও কর্মচারীদের বেতন, বোনাস ও অন্যান্য ভাতাদি পরিশোধের সুবিধার্থে এবং রফতানি বাণিজ্য সচল রাখার স্বার্থে তৈরি পোশাকশিল্প এলাকায় অবস্থিত সকল তফসিলি ব্যাংকের কেবল শিল্প পোশাক সংশ্লিষ্ট শাখা খোলা থাকবে বলে।

সার্কুলার অনুযায়ী, ঢাকা মহানগরী, আশুলিয়া, টঙ্গী, গাজীপুর, সাভার, ভালুকা, নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রামে অবস্থিত পোশাক শিল্প এলাকার তফসিলি ব্যাংকের কেবলমাত্র তৈরি পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্ট শাখাসমূহ খোলা থাকবে। এরমধ্যে শুক্রবার অর্ধদিবস (সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত) এবং শনিবার পূর্ণদিবস (সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত) খোলা থাকবে।

এছাড়া রেমিট্যান্স প্রবাহ স্বাভাবিক রাখা ও প্রবাসীদের রেমিট্যান্স বিতরণের উদ্দেশ্যে স্বীয় বিবেচনায় শনিবার (২৪ জুন) প্রয়োজনীয় সংখ্যক শাখা খোলা রাখার নির্দেশনা দিয়ে সকল তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর চিঠি পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

রেমিট্যান্সের জন্য শনিবার ব্যাংক খোলা : দেশের অর্থনীতির চালিকাশক্তির অন্যতম উপাদান হিসাবে বিবেচিত বৈদেশিক রেমিট্যান্স প্রবাহ স্বাভাবিক রাখা এবং আসন্ন ঈদ-উল-ফিতরের পূর্বে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স বিতরণের উদ্দেশ্যে আগামী শনিবার (২৪ জুন) পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করে বৈদেশিক রেমিট্যান্স সুবিধাভোগী গ্রাহকের সংখ্যা ও রেমিট্যান্সের পরিমাণের ভিত্তিতে স্বীয় বিবেচনায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক শাখা খোলা রাখার জন্য তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর নিকট চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওইদিন যেসব ব্যাংকের শাখা খোলা থাকবে সেদিন শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের শাখায় নগদ অর্থ জমা দেওয়া এবং বৈদেশিক রেমিট্যান্স বিতরণ সংক্রান্ত কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

Previous article২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় হবে ১২০০০ ইউএস ডলার
Next articleবাজেট পাস হলে বিএনপির সমালোচনা বন্ধ হবে: সেতুমন্ত্রী