সংসদ অধিবেশন বসছে আজ

0
355

ঢাকা: দশম জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশন বসছে বৃহস্পতিবার। বিকাল ৪টায় শুরু হবে অধিবেশন। সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ২৮ অক্টোবর এ অধিবেশন ডাকেন। সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হবে। এর আগে বেলা ৩টায় সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের মেয়াদকাল নির্ধারণ করা হবে। তবে এবারের অধিবেশন সংক্ষিপ্ত হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।
সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, অনেকটা সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে এ অধিবেশন আহ্বান করা হয়েছে। ১৮ সেপ্টেম্বর দশম জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশন শেষ হয়। একটি অধিবেশন শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে পরবর্তী অধিবেশন ডাকার বিধান থাকায় এ অধিবেশন আহ্বান করা হয়েছে।
অধিবেশন সর্বোচ্চ ১১ থেকে ১৩ কার্যদিবস চলতে পারে। সংক্ষিপ্ত হলেও এ অধিবেশনের জন্য এরই মধ্যে ১০টি বিল জমা পড়েছে। এর মধ্যে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি গবেষণা কাউন্সিল (বিপিইআরসি) বিল পাসের অপেক্ষায় রাখা হয়েছে। এছাড়া দুটি নতুন বিল উত্থাপন ও সাতটি বিল কমিটিতে বিবেচনাধীন রয়েছে।
সংশ্লিষ্টরা জানান, বাংলাদেশ ওশানোগ্রাফিক রিসার্স ইনস্টিটিউট বিল-২০১৪ এবং বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) সংশোধন বিল-২০১৪ এ অধিবেশনে উত্থাপন হবে।
কমিটিতে বিবেচনাধীন বিলগুলো হচ্ছে, দ্য ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ অর্ডার (সংশোধন) বিল-২০১৪, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ বিল-২০১৪, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ বিল-২০১৪, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ (সংশোধন) বিল-২০১৪, বাংলাদেশ হোটেল ও রেস্তোঁরা বিল-২০১৪, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক বিল-২০১৪ এবং উপ-আনুষ্ঠানিক শিক্ষা বিল-২০১৪।
এছাড়া বিভিন্ন বিধিতে বেশ কয়েকটি নোটিসও প্রশ্ন জমা পড়েছে। ১ সেপ্টেম্বর দশম সংসদের তৃতীয় অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশন স্থায়ী হয় মোট ১৪ কার্যদিবস।
এই অধিবেশনে সরকারি বিল জমা পড়ে ১৪টি। এর মধ্যে পাস হয় পাঁচটি। পাস হওয়া বিলগুলোর মধ্যে বহুল আলোচিত সংবিধান (ষোড়শ সংশোধন) বিলও ছিল।

Print Friendly, PDF & Email