Home রাজনীতি সুনামগঞ্জে জেলা আওয়ামীলীগের সভায় দুই সহ সভাপতির উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়

সুনামগঞ্জে জেলা আওয়ামীলীগের সভায় দুই সহ সভাপতির উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়

1383
0

বিশেষ প্রতিনিধিঃঃ   সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরি কমিটির সভায় একটি উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দুই সহ সভাপতির মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়েছে।

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ সূত্রে জানা যায়,গতকাল বৃহস্পতিবার পৌর শহরের জগতজ্যোতি পাঠাগার মিলনায়তন জেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা অাওয়ামী লীগের সভাপতি অালহাজ্ব মতিউর রহমান। সভায় জেলা আওয়ামীলীগলীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এনামুল কবীর ইমন জেলার ১১ টি উপজেলা,১ টি থানা ও দুইটি পৌরসভা সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণের প্রস্তাব করেন।সভায় সর্বসম্মতিক্রমে বিভিন্ন তারিখ নির্ধারণ করে উত্থাপিত প্রস্তাব অনুমোদিত হয়। পরে এক পর্যায়ে জেলা অাওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সিদ্দিক আহমদ ফ্লোর নিয়ে জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগলীগের সম্মেলন প্রয়োজন নেই উল্লেখ করে বলেন এই উপজেলায় সাংগঠনিক বিশৃঙ্খলা নেই। জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সৈয়দ আবুল কাশেম সংগঠনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্য সম্মেলনের জন্য উঠেপড়ে লেগেছেন। তিনি বলেন,কাশেম সাব জনবিচ্ছিন্ন নেতা জগন্নাথপুরে তার কোন অবস্থান নেই।

তিনি লন্ডনে থেকে মাঝেমধ্যে দেশে এসে বিভিন্ন অপতৎপরতা শুরু করেন। উপযুক্ত নেতৃত্ব জগন্নাথপুর অাওয়ামী লীগ পরিচালনা করছে। অামি এখানে সংগঠন দেখভাল করি।যার জগন্নাথপুরে কিছুই নাই তিনি কেনো সংগঠন নিয়ে মাথা ঘামাবেন।

এর পাল্টা জবাবে সহ সভাপতি সৈয়দ অাবুল কাশেম বলেন,অামি ঐতিহ্যবাহি সৈয়দপুর অামার গ্রাম।৭০০ বছরের ঐতিহ্যবাহী গ্রামে অামার জন্ম।তিনি অামার গ্রামের পাশ্ববর্তী লুদুরগ্রামের বাসিন্দা। তিনি বললেন জগন্নাথপুরে আমার অস্তিত্ব নাই। সিদ্দিক সাব অাপত্তিজনক বক্তব্য রেখেছেন তা প্রত্যাহার করতে হবে।তিনি সদ্য সমাপ্ত মীরপুর ইউপির নির্বাচনে নৌকার বিরোধিতা করেছেন। জগন্নাথপুর উপজেলার ৮ ইউনিয়নের মধ্যে ৫ টিতে পরাজিত হয়েছে। এসবের জন্য তিনি দায়ী। যারা সংগঠনকে কুক্ষিগত করে আখের গোচাচ্ছে তাদেরকে নেতৃত্বে রাখতে সিদ্দিক সাব সম্মেলন অায়োজনে বাধা সৃষ্টি করছেন।উপজেলা অাওয়ামী লীগের সভাপতির কেন্দ্রে নৌকা ২০০ ভোট পায়। তাদের লজ্জা থাকা উচিত।পরে সভাপতি অালহাজ্ব মতিউর রহমান বলেন দুই নেতা পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিয়েছেন।জবাবও হয়ে গেছে। বিষয়টি এখানেই শেষ। ভুল বুঝাবুঝির অবকাশ নেই। অামরা সকল উপজেলায়ই সম্মেলন করব।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ জেলা অাওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট নূরে অালম সিদ্দীকি উজ্জ্বল বলেন,সভায় প্রতিটি উপজেলায় দলের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারন করা হয়েছে। জগন্নাথপুর উপজেলা সম্মেলন নিয়ে দুই সহ সভাপতি পাল্টাপাল্টি বক্তব্য রেখেছেন তবে কোন উত্তেজনা ছিল না।উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় নয় দুই নেতা তাদের নিজস্ব মতামত তুলে ধরেছেন।

Previous articleআবরার হত‌্যার প্রতিবাদে ২২ অক্টোবর ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ
Next articleদেশের আর্থিক খাত ঝুঁকিপূর্ণ নয়: অর্থমন্ত্রী