২৮ এপ্রিল পর্যন্ত কঠোর লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

0
73

ঢাকা : করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান লকডাউনের মেয়াদ একই শর্তে আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ল। বৃহস্পতিবার থেকে আরো এক সপ্তাহ লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এতে বলা হয়, আন্তজাতিক বিশেষ ফ্লাইট চলাচল, ব্যাংকিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখাসহ আগের সব বিধিনিষেধ আরোপের সময়সীমা ২১ এপ্রিল মধ্যরাত থেকে ২৮ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বাড়ানো হলো।
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ১৪ এপ্রিল থেকে সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। ২১ এপ্রিল তা শেষ হওয়ার কথা।

এরই মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান লকডাউনের (বিধিনিষেধ) মেয়াদ আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়। বিধিনিষিধ একই থাকছে। গতকাল সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উদ্যোগে আন্তঃমন্ত্রণালয় ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর আগে গত রোববার রাতে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির ৩১তম সভায় ‘কঠোর লকডাউন’ আরো এক সপ্তাহ বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন গতকাল জানান, প্রধানমন্ত্রীর কাছে (লকডাউনের বিষয়ে) সামারি পাঠানো হয়েছে। তিনি অনুমোদন দিলে প্রজ্ঞাপন জারি হবে। আজ জারি হলো।
করোনা সংক্রমণ রোধে গত ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে সারা দেশে আটদিনের কঠোর লকডাউন শুরু হয়। আগামীকাল বুধবার (২১ এপ্রিল) মধ্যরাত পর্যন্ত এই লকডাউন বহাল থাকার কথা ছিল। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের মতামতের ভিত্তিতে চলমান লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

গতকাল সকালে এই বিষয়টি প্রথমে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, চলমান লকডাউনের মেয়াদ আরো এক সপ্তাহ বাড়ানোর বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ সরকার সক্রিয়ভাবে বিবেচনা করছে। তবে জীবন-জীবিকার প্রয়োজনে ঈদের আগে লকডাউন শিথিলের ভাবনাও সরকারের রয়েছে। নিজের সরকারি বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে সরকার ঈদের আগে লকডাউন শিথিলের চিন্তাভাবনা করছে।
ঈদের সময় ঘরমুখো মানুষের যাতায়াতের জন্য লকডাউন শিথিল হতে পারে। মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকুন ও ধৈর্য ধরুন। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে সরকার সারা দেশে আরো এক সপ্তাহ লকডাউন বাড়ানোর সক্রিয় চিন্তাও করছে।

লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়ে গতকাল মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উদ্যোগে আন্তঃমন্ত্রণালয় ভার্চুয়াল সভা বসে। সভায় করোনা সংক্রমণ রোধে আরো এক সপ্তাহের জন্য ‘কঠোর লকডাউন’ আরোপে জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সুপারিশ নিয়ে আলোচনা করা হয়।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটি লকডাউনের মেয়াদ আরো সাত দিন বাড়ানোর সুপারিশ করেছে। সাইন্টিফিক্যালি তো ১৪ বা ১৫ দিন লকডাউন না হলে সংক্রমণের চেইনটা পুরোপুরি ভাঙা সম্ভব হয় না। সেই পরিপ্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত হয়েছে আগামী ২২ থেকে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত আগের শর্ত মেনে লকডাউন কন্টিনিউ করবে। বিধিনিষেধ আরো সাত দিন বাড়ল।

Print Friendly, PDF & Email