পাবনায় দু’পক্ষের সংঘর্ষ গুলিবিদ্ধসহ আহত ১৫

0
83

পাবনার চরঘোষপুরে পুর্ব বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ ১৫জন আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ আহতদের মধ্যে একজন নারী ও একজন শিশু রয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পাবনা সদর উপজেলার চরঘোষপুর মধ্য পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।
আহতরা জানায়, স্থানীয় আরিফ গ্রুপের লোকজন সকালে একটি মাঠে ফুটবল খেলছিলেন। এ সময় কাইউম গ্রুপের ৪/৫ জন লোক এসে চাঁদা দাবী করে। চাঁদা দিতে অস্বিকার করায় তারা একজনকে পিটিয়ে গুরত্বর আহত করে। পরে কাইউমের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন সশস্ত্র হামলাকারী এসে অর্তকিত গুলি করে। গুলিতে নিলুফার ইয়াসমিন নামে এক মহিলা ও সাহাবাজ নামে এক শিশুসহ ১২জন আহত হয়। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এদিকে কাইউম গ্রুপের ৩জন আহত হয়ে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়।

আহতরা হলেন, আরিফ গ্রুপের মোহাম্মদ আলীর ছেলে মিজানুর রহমান (৪০), আহম্মদ আলীর ছেলে আনিছুর রহমান (৫৫), আহম্মেদ মালিথার ছেলে মোহাম্মদ আলী (৬০) ও গোলাম মোস্তাফা (৪৫),আব্দুল গফুরের ছেলে মোকাদ্দেস (৪৫), মোকাদ্দেসের ছেলে রাহুল (১৩), গফুর মালিথার ছেলে আজমত(৪৫), আনিছুর রহমানের ছেলে রনি (৩২), জিয়াউর রহমানের ছেলে হামিন(১০), আরিফুলের ছেলে সাহবাজ (১৫), মোহাম্মদের ছেলে তৌফিক(২২), গোলাম মোস্তাফার স্ত্রী নিলুফার ইয়াসমিন (৩০)। কাইয়ুম গ্রুপের মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান (৬০), ইউসুফ মুন্সির ছেলে মুকুল (৪০) ও মুকুল এর ছেলে আবির (১০)। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসিম আহম্মেদ জানান, ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এখন পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email