সত্যিকারের বন্ধু হিসেবেই থাকবো: হাসিনাকে শি জিনপিং

0
327

বেইজিং, চীন থেকে: চীন-বাংলাদেশের মধ্যকার সম্পর্ক আরো গভীর ও শক্তিশালী হবে আশা প্রকাশ করে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেছেন, সত্যিকারের বন্ধু হিসেবে থাকবো।

শুক্রবার (৫ জুলাই) স্থানীয় সময় বিকেলে চীনের রাজধানী বেইজিংয়ের স্টেট গেস্ট হাউজে সফরররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে একথা বলেন চীনের প্রেসিডেন্ট।

পরে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে একথা জানান। এসময় প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলামও উপস্থিত ছিলেন।

প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যেকার বৈঠকের কথা তুলে ধরে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক ব্রিফিংয়ে বলেন, দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অত্যন্ত সোহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা হয়েছে। খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ ও খোলামেলা আলোচনা হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১৪ চীন, ২০১৬ ঢাকায় এখন চীনের এ বৈঠকের সঙ্গে তুলনা করে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, একটা ভিন্ন সমীকরণ ও কেমিস্ট্রি লক্ষ্য করা গেছে।

শহীদুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেন সত্যিকারের বন্ধু হিসেবে থাকবো। শি জিনপিং বলেন, বাংলাদেশ বন্ধুভাবাভাপন্ন প্রতিবেশী। দুই প্রতিবেশীই উন্নয়নের একটা গুরুত্বপূর্ণ পর‌্যায়ে আছি।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন, চীন বাংলাদেশের উন্নয়নের সঙ্গে সব সময় আছে এবং থাকবে। এটা দিনে দিনে আরও গভীরতর ও শক্তিশালী হবে।

শহীদুল হক বলেন, দু’জনেই (চায়নিজ প্রেসিডেন্ট ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী) সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে দু’দেশের সম্পর্ক যেন আরও উচ্চতায় যায় সে জন্য ওনারা চেষ্টা করবেন।

পররাষ্ট্র সচিব জানান, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধির ভূয়সী প্রশংসা করে চায়নিজ প্রেসিডেন্ট বলেন, বাংলাদেশেরও চায়না থেকে অনেক কিছু শেখার আছে, চীনের বাংলাদেশ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। দুই নেতাই বারবার গুরুত্ব দিয়েছেন যে আমাদের এক মাত্র লক্ষ্য হলো জনগণের উন্নয়ন।

দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে চীনের সঙ্গে বাংলাদেশে বাণিজ্য ভারসাম্যহীনতা কমিয়ে আনার কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

[সূত্র: বাংলানিউজ২৪]

Print Friendly, PDF & Email