সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় চিকিৎসাধীন যুবকের মৃত্যু

0
78

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌর শহরের ইসহাকপুর এলাকায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত যুবক সরোয়ান (২১) টানা ১১দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নিহত সরোয়ান ইসহাকপুর এলাকার সুন্দর আলীর ছেলে। গত মাসের ২৮ অক্টোবর রাত দেড়টায় পৌর শহরের আছিম শাহ মাজারে গানের অনুষ্টান দেখে বাড়ি ফেরার পথে শহরের জগন্নাথপুর-ভবের বাজার সড়কের মনাইর ভাংঙ্গা নামক স্থানে পৌছা মাত্র পূর্ব বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ ইসহাকপুর এলাকার ২৫/৩০জনের সঙ্গবদ্ধ দল সরোয়ানের পথরোধ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় অন্যান্যদের সহযোগিতায় আহত সরোয়ানকে প্রথমে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় দু-পক্ষের লোকজনের মধ্যে আবারো উত্তেজনা দেখা দেয় খবর পেয়ে গত সোমবার রাতে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ লাল মিয়ার পক্ষের আব্দুল কাহারের বাড়ি থেকে একটি পাইপগান ও বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্রসহ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী সহ ১৩ জনকে আটক করেন।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক অনুজ কুমার দাশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে হামলায় আহত যুবকের বাবা সুন্দর আলী বাদী হয়ে ২২ জন সহ অজ্ঞাত নামা ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে জগন্নাথপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক অনিক কুমার দে হামলায় আহত যুবকের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আজ শনিবার ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে। হামলার ঘটনার মামলাটি হত্যা মামলা হিসেবে আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করব। আজ শনিবার মাগরিবের নামাজের পর ইসহাকপুরে নিহত সরোয়ানের জানাযার নামাজ অনুষ্টিত হবে।

Print Friendly, PDF & Email