Home আঞ্চলিক দিরাই-সুনামগঞ্জ সড়কে পুলিশ জনতা সংঘর্ষ, আহত ৫

দিরাই-সুনামগঞ্জ সড়কে পুলিশ জনতা সংঘর্ষ, আহত ৫

326
0

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা: ঘন ঘন লোড শেডিং আর লো ভল্টেজের জালায় অতিষ্ঠ দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার নোয়াখালী বাজার তৎপার্শ্ববর্তী এলাকার বিদ্যুৎ গ্রাহকগন। বারবার এর প্রতিকার চেয়েও পাননি এলাকার মানুষ। সোমবার ভোর রাতে আর্জেন্টিনার খেলা দেখার জন্য এলাকার ছেলেরা নোয়াখালী বাজারে জমায়েত হয়। কিন্তু রাত ১টার দিকে বিদ্যুৎ চলে গেলেও সকাল পর্যন্ত আসেনি। ভোর রাতে আর্জেন্টিনার খেলা শুরু হলে বিদ্যুৎ না আসায় বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে এলাকার ছেলেরা। বিক্ষুব্ধ ছেলেরা বিদ্যুতের দাবীতে দিরাই-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে। তখন পুলিশ এসে বিক্ষোভকারীদের থামানোর চেষ্টা করে। কিন্তু বিদ্যুৎ না আসা পর্যন্ত অবরোধে না অনড় থাকার কথা বলে অবরোধকারীরা। এসময় পুলিশের সাথে বিক্ষোভকারীদের তর্ক-বিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভকারীদের নিয়ন্ত্রন করতে পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে তখন বিক্ষোভকারীরাও ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় ২ পুলিশ ও ৩জন বিক্ষোভকারী আহত হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকা জুড়ে চলছে পুলিশের তল্লাশী ও গন গ্রেফতার। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩জনকে আটকের খবর পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী, এলাকাবাসী ও পুলিশের সাথে আলাপ কালে জানা যায়, বিদ্যুতের সমস্যায় অতীষ্ঠ নোয়াখালী বাজার, জামলাবাদ, নোয়াখালী, বগুলার খাড়া, ইমামনগর, দেবগ্রাম ও গাগলী সহ অত্র এলাকার মানুষ। এইসব এলাকায় বিদ্যুৎ যায় না বরং মাঝে মাঝে আসে এই কথা বলা যায়। লো ভল্টেজ আর লোড শেডিং যেন এলাকার মানুষের নিত্য সঙ্গী। আকাশে মেঘ জমলেই লোডশেডিং যেন এলাকার চিরাচরিত নিয়মে পরিনত হয়েছে। সোমবার আর্জেন্টিনা আর চিলির মধ্যে কোপা আমেরিকা কাপ-এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। আর খেলা দেখার জন্য নোয়াখালী বাজার ও তৎপার্শবর্তী এলাকার ছেলেরা ফজর নামাজ শেষ করেই বাজারে জমায়েত হয়। রাত ১টায় বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার পর ছেলেদের প্রত্যাশা ছিল খেলা শুরুর আগে চলে আসবে। এজন্য তাদের পক্ষ থেকে বিদ্যুৎ অফিসে ফোনও করা হয়। শেষ অবধি খেলা শুরু হলেও বিদ্যুৎ না আসায় বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়ে ছেলেরা। তারা রাস্তা অবরোধ করে মিছিল করে। এসময় নোয়াখালী বাজারস্থ দিরাই-সুনামগঞ্জ সড়কের দুই দিকে অর্ধ শতাধিক গাড়ী আটকে যায়। খবর পেয়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। তারা বিক্ষোভকারীদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করে। কিন্তু বিদ্যুৎ না আসা পর্যন্ত অবরোধ চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে অনড় থাকে বিক্ষোভকারীরা। এসময় পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মাঝে প্রথমে বাক-বিতন্ডা পরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। শেষ পর্যায়ে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সরাতে লাটিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করলে, বিক্ষোভকারীরা পাল্টা ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে ২জন পুলিশ সদস্য ও ৩জন বিক্ষোভকারী আহত হন।
একপর্যায়ে অতিরিক্ত পুলিশ আসলে বিক্ষোভকারী সরে যায়। একটু পরেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ নোয়াখালী বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২জনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ২জন ব্যাবসায়ী ও তারা অবরোধে ছিলনা বলে জানান ধৃতদের স্বজন রা। এদিকে বিক্ষোভকারীদের ধরতে পুলিশ নোয়াখালী বাজার, জামলাবাদ, ইনামনগর তৎপার্শ্ববর্তী এলাকায় ব্যাপক তল্লাশী ও অভিযান চালিয়েছে বলেও জানা গেছে। এই ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে জানা গেছে।

Previous articleপঞ্চম শ্রেণির প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা আগের মতোই চলবে
Next articleহত্যার সঙ্গে জড়িত আরও দু-একজন ধরা পড়বে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী