মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে পদদলিত হয়ে নিহত ১০

0
441

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে পদদলিত হয়ে অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন অর্ধশত।  সোমবার দুপুরে চট্টগ্রামের রীমা কমিউনিটি সেন্টারে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়েছে। সোমবার দুপুরে চট্টগ্রামের রীমা কমিউনিটি সেন্টারে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক মো. হামিদ নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ওই কমিউনিটি সেন্টার থেকে অন্তত ১৫ জনকে আনা হয়েছিল জানিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক মো. হামিদ বলেন, ‌তাদের মধ্যে নয়জনকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন হাসপাতাল সংশ্লিষ্টরা।

রীমা কমিউনিটি সেন্টার ছাড়াও কিং অব চিটাগাং, স্কয়ার, কিশলয়, সুইস পার্ক, স্মরণিকা, এন মোহাম্মদ, কে বি কনভেনশন হল, ভিআইপি ব্যাংকুয়েট, গোল্ডেন টাচ, স্মরণিকা, সাগরিকা কমিউনিটি সেন্টারে কুলখানি ও মেজবানের আয়োজন করা হয়।

জানা গেছে, প্রয়াত মহিউদ্দিন চৌধুরীর পরিবারের পক্ষ থেকে তার মৃত্যুতে চট্টগ্রামের ১৪টি কমিউনিটি সেন্টারে কুলখানি ও মেজবানের আয়োজন করা হয়। এর মধ্যে রীমা কমিউনিটি সেন্টারে হিন্দু-বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীসহ অমুসলিমের জন্য মেজবানের ব্যবস্থা করা হয়। সেখানে দুপুর ১টার পর প্রচণ্ড ভিড় তৈরি হয়। একপর্যায়ে হুড়োহুড়ি কেন্দ্র করে পদদলিত হয়ে হতাহতের ঘটনা ঘটে।