রোডম্যাপের আগে সহায়ক সরকারের ফয়সালা দিতে হবে: খন্দকার মোশাররফ

0
454

ঢাকা: নির্বাচন কমিশনের দেয়া রোডম্যাপের আগে সহায়ক সরকারের ফয়সালা দিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আওয়ামী লীগের রুপরেখাকে বাস্তবায়ন করতেই নির্বাচন কমিশন এই রোডম্যাপ দিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের দেয়া এই রোডম্যাপের আগে সহায়ক সরকারের বিষয়ে ফয়সালা করতে হবে। এই ফয়সালা হতে পারে টেবিলে, ফয়সাল হতে পারে মাঠে। তবে আমরা চাই সহায়ক সরকারের এই ফয়সালা হোক শান্তিপূর্ণভাবে।

একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আবারো একটা নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে চায় আওয়ামী লীগ মন্তব্য করে তিনি আরো বলেন, নিজেদের ইচ্ছা অনুযায়ী, নিজেদের সুবিধার জন্য নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তাদের রদবদল করা হচ্ছে কিন্তু কমিশন তা কিছুই জানেনা। এই রকম কমিশনের হাতে কখনো সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। আমরা তা কখনই বিশ্বাস করিনা।

রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ‘নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠনে নাগরিক প্রত্যাশা’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক সাংস্কৃতিক জোট নামের একটি সংগঠন।

সংবিধানের বাইরে কিছুই করা যাবেনা আওয়ামী লীগ নেতাদের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগের নেতারা জব শুরু করেছে যে সংবিধানের বাইরে কিছুই করা যাবে না। কিন্তু এ দেশে তো সংবিধানের বাইরেও নির্বাচন হয়েছে।

সংবিধান মানুষের জন্য, সংবিধানের জন্য মানুষ নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তো ১৯৯৬ সালেই এদেশে তত্বাবধায়ক সরকারের প্রয়োজন উপলব্ধি করেছিলেন।কিন্তু আজ তিনি ক্ষমতায় থাকার জন্যে, নিজেদের স্বার্থের জন্যে সংবিধান কাটা, ছেড়া করে নিজেদের মত করে নিয়েছেন। আজ যদি দেশে তত্বাবধায়ক সরকার থাকতো তাহলে নির্বাচন নিয়ে কোনো প্রশ্নই থাকতো না।কিন্তু সেটা তো আপনারা বাতিল করে দিয়েছেন নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারের জন্য।

খালেদা জিয়া আর দেশে ফিরবেন না আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পদকের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, বেগম জিয়া কবে দেশে ফিরবেন এটা চিকিৎসকের পরামর্শের উপর নির্ভর করবে। ওবায়দুল কাদের বলার কে।পালিয়ে যাওয়ার রেকড তো আওয়ামী লীগের নেতাদেরই বৈশিষ্ট্য।

বেগম জিয়া লন্ডন থেকে ফিরেই সহায়ক সরকারের রুপরেখা দিবেন উল্লেখ করে বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, দেশে একটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য বেগম খালেদা জিয়া একটি সহায়ক সরকারের রুপরেখা দিবেন। এই রুপরেখা কারো পক্ষেও নয় আবার কারো বিপক্ষেও নয়। এটি একটি সমঝতার বা আলোচনার প্রস্তাব। সকল দলের সমঝতা না হলে দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মত দেশ আর কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবেনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনগণের প্রয়োজনে, জনগণ যদি চায় তাহলে এই সংবিধান পরিবর্তন করে একটি সহায়ক সরকারের অধিনে সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন।অন্যথায় এই দাবি নিয়ে জনগণ মাঠে নামবে।