সাংবাদিকদের নির্যাতনের উদ্দেশ্যে ৫৭ ধারার প্রবর্তন করা হয়নি: প্রধানমন্ত্রী

0
451

বিশেষ সংবাদদাতা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কোনো সাংবাদিক বা গণমাধ্যমকর্মীকে হয়রানি বা নির্যাতনের উদ্দেশ্যে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারার প্রবর্তন করা হয়নি। গণমাধ্যমকর্মীরা সঠিক নিয়ম-কানুনের মধ্যে থেকে যেন তাদের কাজ করতে পারেন সেজন্যই এ ধারা। সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

বৈঠকে উপস্থিত একাধিক মন্ত্রীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা নিয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এক অনির্ধারিত আলোচনা হয়েছে। অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় আইসিটি অ্যাক্টের প্রসঙ্গটি তোলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।
প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ৫৭ ধারায় বহু সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সাংবাদিকরা এ ধারায় হয়রানির শিকার হচ্ছেন।

প্রধানমন্ত্রী তথ্যমন্ত্রীর কাছে জানতে চান- এ পর্যন্ত কত মামলা হয়েছে? মামলাগুলো করছে কারা? তবে কোনো ব্যক্তি যদি আরেক ব্যক্তির বিরুদ্ধে আদালতে যায় তাহলে এখানে সরকার কী করতে পারে? সবারই তো আইনি পদক্ষেপ নেয়ার অধিকার আছে।

বৈঠক সূত্র জানায়, তথ্যমন্ত্রী ৫৭ ধারার বিরুদ্ধে সাংবাদিকরা আন্দোলন করছেন বলে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী তথ্যমন্ত্রীর কাছে জানতে চান ৫৭ ধারায় কতজন সাংবাদিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেউ যদি দেশের সুনাম ক্ষুণ্ণ করার জন্য রাষ্ট্রবিরোধী কোনো লেখা লেখে অথবা কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে যৌক্তিক প্রমাণ ছাড়াই কোনো নিউজ লেখে তাহলে কী হবে, তার বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া যাবে না?