গুপ্ত হত্যাকারীরা আমাদের চারপাশে আছে: কামরুল

0
160

ঢাকা: নিজেদের চারপাশে ‘গুপ্তঘাতক’ থাকার আশংকা করেছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। শনিবার দুপুরে রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় এ আশংকা করেন তিনি। কামরুল বলেন, গুপ্ত হত্যাকারীরা আমাদের চারপাশে আছে। আমাদের ডানে-বামে চারপাশে গুপ্তহত্যাকারীরা অবস্থান করছে। তাদের এখন চেনা যায় না। তাদের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে হলে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদের সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মণি, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, দক্ষিণের নেতা হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন ও ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরো সদস্য হাজেরা সুলতানা খাতুন।

জঙ্গিদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ার আহ্বান জানিয়ে কামরুল ইসলাম বলেন, এখন আর রাজনৈতিক বক্তব্য দেওয়ার সময় নেই, আমাদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। এখন সময় প্রতিরোধ গড়ে তোলার।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এখন শুধু মাদ্রাসা ছাত্র নয়, বিভিন্ন ইংরেজি মাধ্যম ও বেসরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররাও জঙ্গিবাদে জড়িয়ে গুপ্তহত্যা করছে। এদিকেও আমাদের দৃষ্টি দিতে হবে। ফাহিমের ঘটনা প্রসঙ্গে বেসরকারি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ছে দাবি করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, মাদারীপুরের শিক্ষক হত্যাচেষ্টায় যে তরুণ ধরা পড়েছে, সে বেসরকারি কলেজের একজন মেধাবী ছাত্র। তাকে ব্রেইন ওয়াশ করে জঙ্গি বানোনো হয়েছে।

১৯ তারিখের মানববন্ধন কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি নয়- উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, এটা সামাজিক আন্দোলন। এর মাধ্যমে জণগণকে আমরা সচেতন করতে চাই। জনগণের মাঝে সব অন্যায়ের বিরুদ্ধে যেন প্রতিশোধের আগুন জ্বলে ওঠে।

জঙ্গিবাদের অর্থ যোগানদাতা ও মদদদাতাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে জানিয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, দেশের এই গুপ্তহত্যা ও জঙ্গিবাদের মূল হোতা বিএনপি-জামায়াত। যারাই জঙ্গি হিসেবে এই পর্যন্ত ধরা পড়ছে, সবাই একসময় ছাত্রশিবির বা ছাত্রদলের নেতাকর্মী ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email