ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ: রুয়েট বন্ধ ঘোষণা

0
263

রাজশাহী: রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় এক সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। শুক্রবার বিকেল ৩টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের এক সভায় শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টা দিকে বন্ধের এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে নিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, শিক্ষার্থীদের মধ্যে মারামারির ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ে যে উদ্ভূত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় এক সপ্তাহ বন্ধ থাকবে। শুক্রবার বিকেল ৩টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছেড়ে দিতে হবে। ১৮ তারিখ পুনরায় হলগুলো খুলে দেওয়া হবে এবং ১৯ তারিখ সকল বিভাগে নিয়মিত ক্লাস-পরীক্ষা শুরু হবে।
রুয়েটের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এন এইচ এম কামরুজ্জামান বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় শুক্রবার সকালে একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরি সভা ডাকা হয়। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে আবাসিক হলসহ বিশ্ববিদ্যালয় এক সপ্তাহ বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।’
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে রুয়েটের রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ও আওয়ামী লীগ নেতা সিদ্ধার্ধ শঙ্কর রায়কে লাঞ্ছিত করার ঘটনা ঘটে। ল্যাপটপ চুরির জের ধরে রুয়েট ছাত্রলীগের কর্মী সাকিল কবীরকে চড় মারায় ওই শিক্ষককে লাঞ্ছিত করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ নিয়ে ওইদিন রুয়েটের শহীদ জিয়াউর রহমান হলে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে মহানগর ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ এসে শিক্ষক সিদ্ধার্থ শঙ্কর রায়ের পক্ষ নিলে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠে।
এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে একই ঘটনায় রুয়েট ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে দুইজন আহত হয়। আহতদের মধ্যে মাসুম আকন্দ (২২) নামে এক শিক্ষার্থী রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। মাসুম রুয়েটের গ্যাস ও সিরামিক কৌশল বিভাগের ছাত্র এবং ছাত্রলীগের কর্মী। এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রুয়েট প্রশাসন বন্ধের এ সিদ্ধান্ত নেয়।

Print Friendly, PDF & Email