জঙ্গিদের কোনো মানবাধিকার নেই: আইজিপি

0
181

 

ঢাকা: জঙ্গিদের কোনো মানবাধিকার নেই বলে মন্তব্য করে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক বলেছেন, কল্যাণপুর ও নারায়ণগঞ্জে তাদেরকে অনেক সময় দেয়া হয়েছে। কিন্তু আত্মসমর্পণ করেনি। উল্টো পুলিশকে বোমা মেরেছে, গুলি মেরেছে। ‘যারা জঙ্গিদের মানবাধিকারের কথা বলেন, তাদের বোঝা উচিৎ জঙ্গিদের আবার কিসের মানবাধিকার। আগে দেশকে বাঁচাতে হবে, জনগণকে বাঁচাতে হবে। তারপর রাজনীতি, দেশের স্বার্থেই রাজনীতি। সব বিষয়ে বিরোধীতা করলে হবে না,’ মন্তব্য করেন পুলিশপ্রধান।

শনিবার দুপুরে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পুলিশ লাইন্স মাঠে আয়োজিত কমিউনিটি পুলিশিং এবং জঙ্গিবাদবিরোধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে একেএম শহীদুল হক আরও বলেন, জঙ্গিদের গ্রেফতার করা সহজ বিষয় না। তারা আত্মঘাতী, তারা মেন্টালি মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকে। তারা নিজেরা বলে, আমরা মরবো, জান্নাতে যাব, যাদের মারবো, তারা জাহান্নামে যাবে।

তিনি আরো বলেন, তারা কখনো আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে নিজেকে ধরা দিতে চান না। ওদের কাছে বোমা আছে, আগ্নেয়াস্ত্র আছে, ধারালো অস্ত্র আছে, তাদের তো আর চুমা দিয়ে, আদর দিয়ে তো গ্রেফতার করা যায় না।

পৃথিবীর কোন দেশ জঙ্গিদের গ্রেফতার করে না প্রশ্ন করেন আইজিপি। তিনি বলেন, আল-কায়দা নেতা লাদেনকে বেশ কয়েক বছর চেষ্টার পর যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তান থেকে গ্রেফতার করে তাকে জীবিত রেখেছে? যাওয়ার পথে মেরে সমুদ্রে ফেলে গেছে।

জঙ্গিদের গ্রেফতার না করলে নিজেদের মরতে হবে। যারা পুলিশের সাফল্য সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করছেন, তাদের শুভবদ্ধির উদয় হোক। আমাদের পুলিশের সাফল্য পৃথিবীতে রোল মডেল হিসেবে নেয়া যেতে পারে বলে আমি মনে করি।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- রাজশাহী সদর আসনের এমপি ফজলে হোসেন বাদশা, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল হান্নান, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি খুরশীদ হোসেন, জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দীন, র‌্যাব-৫ অধিনায়ক লে.কর্নেল মাহবুব আলম, বিজিবি ব্যাটালিয়ন-১ পরিচালক লে. কর্নেল শাহাজাহান সিরাজ, মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং আহ্বায়ক অধ্যাপক আব্দুল খালেক, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email